kalerkantho

সোমবার । ৫ ডিসেম্বর ২০২২ । ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ । ১০ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

ডাবল সেঞ্চুরির পেঁয়াজ-কাঁচামরিচ হিলিতে এখন ২০ টাকা কেজি

হিলি প্রতিনিধি   

১৯ সেপ্টেম্বর, ২০২২ ১৬:৪৫ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ডাবল সেঞ্চুরির পেঁয়াজ-কাঁচামরিচ হিলিতে এখন ২০ টাকা কেজি

আমদানি ও সরবরাহ বৃদ্ধি পাওয়ায় দিনাজপুরের হিলি স্থলবন্দরে এক সময় দামে ডাবল সেঞ্চুরি করা পেঁয়াজ ও কাঁচামরিচ এখন ২০ টাকা কেজিতে নেমে এসেছে। চার দিন আগেও প্রতিকেজি পেঁয়াজ ২২ থেকে ২৫ টাকা দরে বিক্রি হয়েছে সেই পেঁয়াজ এখন বিক্রি হচ্ছে ১৮ থেকে ২০ টাকা কেজি দরে। গতকাল রবিবার প্রতিকেজি কাঁচামরিচ হিলি বাজারে ৩০ টাকা দরে বিক্রি হয়েছে। আজ সোমবার বিক্রি হচ্ছে ২০ টাকা কেজি দরে।

বিজ্ঞাপন

আজ সোমবার হিলি বাজার ঘুরে দেখা যায়, পেঁয়াজের আড়ৎগুলোতে আমদানিকৃত পেঁয়াজ সরবরাহ বৃদ্ধি পেয়েছে। ভারত থেকে কাঁচামরিচ আমদানি বন্ধ থাকলেও হিলি কাঁচামালের দোকানগুলোতে সরবরাহ বৃদ্ধি পেয়েছে দেশি কাঁচামরিচের।

হিলি স্থলবন্দরের পেঁয়াজ আমদানিকারকরা বলেন, দূর্গাপূজা উপলক্ষে কয়েক দিন ছুটি থাকবে। তাই বন্দর দিয়ে ভারত থেকে আমদানি বৃদ্ধির কারণে বাজারে দাম কমেছে এবং আড়ৎগুলোতে প্রচুর পরিমাণ পেঁয়াজ মজুদ আছে। পেঁয়াজ আমদানি বৃদ্ধি পাওয়ায় স্থানীয় বাজারসহ দেশের বাজারে পেঁয়াজের দাম কমতে শুরু করছে। আমদানি বৃদ্ধি পাওয়ায় বাজারে পেঁয়াজের দাম কমে আসছে।  

হিলি বাজারে কাঁচামরিচ বিক্রেতা বিপ্লব শেখ বলেন, কয়েক দিন ধরে আবহাওয়া ভালো থাকায় দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে কাঁচামরিচের উৎপাদন ভালো হয়েছে। এতে মোকামগুলোতে কাঁচামরিচের সরবরাহ আগের তুলনায় বেড়েছে। আগে শুধু বগুড়া থেকে কাঁচা মরিচ আসছিল। এখন নওগাঁসহ আশপাশের এলাকা থেকেও আসছে কাঁচা মরিচ। এতে বাজারে কাঁচা মরিচের সররবাহ অনেকটাই বেড়েছে গেছে।

মোকামে আমরা যেমন কম দামে কাঁচামরিচ কিনতে পারছি, তেমনি বাজারে কম দামে বিক্রিও করতে পারছি। দেশি কাঁচামরিচের সরবরাহ বাড়ায় ভারত থেকে আমদানি বন্ধ থাকলেও এর প্রভাব পড়েনি এই বন্দরের বাজারে।

হিলি পানামা পোর্ট জনসংযোগ কর্মকর্তা সোহরাব হোসেন মল্লিক প্রতাপ বলেন, আমদানিকৃত পেঁয়াজ কাঁচা পণ্য হওয়ায় দ্রুত বাজারজাত করতে আমদানিকারকদের সবধরনের সহযোগিতা দেওয়া হচ্ছে বলে জানান পানামা পোর্ট কর্তৃপক্ষ।

হিলি কাস্টমসের তথ্যমতে, চলতি মাসের গেলো ১৩ কর্মদিবসে ভারত থেকে ৮ হাজার ৬০০ মেট্টিক টন পেঁয়াজ আমদানি হয়েছে এই বন্দর দিয়ে।



সাতদিনের সেরা