kalerkantho

মঙ্গলবার । ৪ অক্টোবর ২০২২ । ১৯ আশ্বিন ১৪২৯ ।  ৭ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪

বিদেশে বসে চোরাই গরুর কারবার, স্ত্রী আটক

সালথা-নগরকান্দা (ফরিদপুর) প্রতিনিধি    

১৯ আগস্ট, ২০২২ ২০:০৮ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বিদেশে বসে চোরাই গরুর কারবার, স্ত্রী আটক

উদ্ধারকৃত চোরাই গরু

ফরিদপুরের সালথা উপজেলায় ছয়টি চোরাই গরু উদ্ধার করেছে পুলিশ। শুক্রবার (১৯ আগস্ট) সকালে সালথার গট্টি ইউনিয়নের জয়ঝাপ গ্রামের রুস্তম মোল্যা ও তোতা মোল্যার বাড়ি থেকে গরুগুলো উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনায় চোর চক্রের মূল হোতা জিয়ার স্ত্রী সেতু আক্তার (৩০) কে আটক করা হয়।

স্থানীয় বাসিন্দারা জানান, কয়েক বছর ধরে জয়ঝাপ গ্রামের রুস্তম মোল্যার ছেলে জিয়া মোল্যা দেশের বিভিন্ন এলাকা থেকে চোরাই গরু এনে গভীর রাতে নিজের বাড়িতে রাখেন।

বিজ্ঞাপন

এক এলাকার চোরাই গরু অন্য এলাকায় সরবরাহ ও বিক্রি করেন। দেশের বড় বড় গরু চোর চক্রের সাথে জিয়ার সখ্যতা রয়েছে। এ সব ঘটনায় একাধিকবার জিয়াকে আটকও করে পুলিশ।

তারা আরো জানান, গত বছর বাবা-মায়ের চাপের মুখে বিদেশ যান জিয়া। তবে বিদেশে গিয়েও তার চোরাই গরু কারবার বন্ধ হয়নি। বিদেশে বসেই ফোনের মাধ্যমে আপন ভাগিনা জনিকে দিয়ে চোরাই গরু কারবার চালিয়ে আসছেন। গতকাল বৃহস্পতিবার  রাতে ট্রাকে করে বেশ কয়েকটি চোরাই গরু এনে বাড়িতে রাখেন জনি। খবর পেয়ে পুলিশ শুক্রবার সকালে গরুগুলো উদ্ধার করে নিয়ে আসে।

সালথা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. শেখ সাদিক বলেন, রুস্তম মোল্যা ও তোতা মোল্যার বাড়ি থেকে ছয়টি গরু উদ্ধার করা হয়েছে। জিয়া আন্তঃজেলা গরু চোর চক্রের সাথে জড়িত। এখন বিদেশে বসে স্ত্রী ও ভাগিনার মাধ্যমে চোরাই গরুর কারবার করে আসছেন। এ ঘটনায় জিয়ার স্ত্রীকে আটক করা হয়। গরুগুলো শরিয়তপুরের পালং থানা থেকে চুরি করা হয়েছে বলে জানতে পেরেছি। ওই থানায় যোগাযোগ করা হয়েছে।



সাতদিনের সেরা