kalerkantho

মঙ্গলবার । ৪ অক্টোবর ২০২২ । ১৯ আশ্বিন ১৪২৯ ।  ৭ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪

তোকে অনেক দিন ধরে খুঁজছি, বলেই যুবলীগ নেতাকে মারধর

লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি   

১৮ আগস্ট, ২০২২ ২১:০২ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



তোকে অনেক দিন ধরে খুঁজছি, বলেই যুবলীগ নেতাকে মারধর

যুবলীগ নেতা ইব্রাহিম খলিল

লক্ষ্মীপুরের কমলনগর উপজেলার তোরাবগঞ্জ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মীর্জা আশরাফুল জামাল রাসেলের বিরুদ্ধে এক যুবলীগ নেতাকে মারধরের অভিযোগ উঠেছে। বুধবার (১৭ আগস্ট) রাতে চৌরাস্তা বাজারে এ ঘটনা ঘটে। ভুক্তভোগী ওই নেতার নাম ইব্রাহিম খলিল। তিনি তোরাবগঞ্জ ইউনিয়নের ৩ নম্বর ওয়ার্ড যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক ও মুদি ব্যবসায়ী।

বিজ্ঞাপন

জানা গেছে, গতকাল বুধবার রাতে ইব্রাহিম খলিল তার মুদির দোকানে বসে ছিলেন। এ সময় ইউপি চেয়ারম্যান মীর্জা আশরাফুল জামাল রাসেল পাঁচটি মোটরসাইকেলে তার লোকজন নিয়ে খলিলের দোকানের সামনে আসেন। এসেই ‘তোকে অনেক দিন ধরে খুঁজছি, কিন্তু পাচ্ছি না, এখন পেয়েছি’ বলেই চেয়ারম্যান একটি এসএসের পাইপ দিয়ে এলোপাতাড়ি মারধর শুরু করেন।

ইব্রাহিম খলিল বলেন, ‘চেয়ারম্যান নিজেই আমাকে এলোপাতাড়ি পিটিয়েছে। তার পায়ে ধরলেও পেটানো বন্ধ করেনি। পরে আশপাশের লোকজন এলে তাদেরকেও পেটাতে থাকে। এ সময় আমি পালিয়ে রক্ষা পাই। ’

তিনি আরো বলেন, ‘সাবেক এমপি আবদুল্লাহ আল মামুন, উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মেজবাহ উদ্দিন আহমেদ বাপ্পী ও তোরাবগঞ্জের সাবেক চেয়ারম্যান ফয়সাল আহমেদ রতনের ছবি ফেসবুকে পোস্ট করার কারণেই আমাকে পেটানো হয়। ’ 

এ বিষয়ে ইউপি চেয়ারম্যান মীর্জা আশরাফুল জামাল রাসেল বলেন, ‘মাদকদ্রব্য সেবন ও বিক্রিসহ এলাকায় চুরি বেড়ে গেছে। এটি নিয়ন্ত্রণে রাতে বিভিন্ন ওয়ার্ড পরিদর্শনে বের হই। রাত ১টার পরে ইব্রাহিমের দোকান খোলা ছিল। দোকান খোলার কারণ জানতে চাইলে ইব্রাহিম তর্ক শুরু করে। এতে তাকে একবারই আঘাত করা হয়েছে। তার অভিযোগ সত্য নয়। ’

কমলনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ সোলাইমান বলেন, ‘ঘটনাটি শুনেছি। কেউ এখনো লিখিত অভিযোগ করেনি। তবে ঘটনাটির তদন্ত চলছে। ’ 

কমলনগর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. কামরুজ্জামান বলেন, ‘ঘটনাটি শুনেছি। চেয়ারম্যান বলেছেন জুয়া খেলার কারণে কে বা কারা ওই ব্যবসায়ীকে মারধর করেছে। চেয়ারম্যান তাকে মারেনি বলেছে। যেহেতু এখন চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে অভিযোগ উঠেছে। ভুক্তভোগী অভিযোগ দিলে তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে। ’



সাতদিনের সেরা