kalerkantho

মঙ্গলবার । ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২২ । ১২ আশ্বিন ১৪২৯ ।  ৩০ সফর ১৪৪৪

ভাঙারি ব্যবসার আড়ালে চোরাই মালের কারবার!

ধুনট (বগুড়া) প্রতিনিধি   

১৩ আগস্ট, ২০২২ ১৬:৫৭ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ভাঙারি ব্যবসার আড়ালে চোরাই মালের কারবার!

বগুড়ার ধুনট উপজেলায় দীর্ঘদিন ধরে ভাঙারি ব্যবসার আড়ালে চোরাই মালামাল কারবারির অভিযোগ উঠেছে। আইন প্রয়োগকারী সংস্থাকে মাসহারা দিয়ে অবাধে চলছে জমজমাট বাণিজ্য। এমনটাই অভিযোগ এলাকাবাসীর।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, উপজেলা সদর সহ মথুরাপুর, গোসাইবাড়ি, সোনাহাটা, এলাঙ্গী, নলডাঙ্গা, জোড়শিমুল, আড়কাটিয়া, মরিচতলা বাজার এলাকায় অন্তত ৫০টি ভাঙারির দোকান গড়ে উঠেছে।

বিজ্ঞাপন

এ সব দোকানিদের সহযোগিতা ও দাদনের টাকা নিয়ে এলাকা ভিত্তিক গড়ে উঠেছে একাধিক ছোট-বড় চোরের দল। এই চোরের দল বিভিন্ন এলাকা থেকে লোহার যন্ত্রাংশ, বৈদ্যুতিক মোটর, তার, দরজা-জানলার গ্রীল, টিউবওয়েল, টিনসহ বিভিন্ন যন্ত্রাংশ চুরি করে দোকানিদের কাছে স্বল্পমূল্যে বিক্রি করে।

এ ছাড়া বাড়িঘর ও বিভিন্ন কারখানা সংস্কার কাজের জন্য রাখা রড, তারসহ লোহা দ্রব্যাদি ও চুরির অভিযোগও পাওয়া গেছে তাদের বিরুদ্ধে।

প্রতিদিন সন্ধ্যার পর থেকেই ভাঙারির দোকানগুলোতে গভীর রাত পর্যন্ত এ সব চোরাই মাল অন্যান্য সরঞ্জামের সাথে রাখা হয়। ফলে বিপুল পরিমাণ চোরাই মালামাল বিক্রি হচ্ছে দোকানগুলোতে।  

সম্প্রতি ধুনট শহরের সোনামুখী রোড়ে এক ভাঙারির দোকান থেকে চোরাই বৈদ্যুতিক তার জব্দ করেছে পুলিশ। এ সময় শাহ আলম নামে এক ব্যবসায়ীকে গ্রেপ্তার করা হয়।   

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক কয়েকজন ভাঙারি ব্যবসায়ী জানান, চুরির মালামাল ছাড়া প্রকৃত ভাঙারি ব্যবসা করে লোকসান গুনতে হবে। এ ব্যবসায় টিকে থাকা খুবই কঠিন। তাই সকলকে ম্যানেজ করেই চালাতে হয়ে এই ভাঙারি ব্যবসা।

স্থানীয়দের অভিযোগ, অল্প পুঁজিতে ৫-৭ বছর বেচাকেনা করে ভাঙারি ব্যবসায়ীরা আঙ্গুল ফুলে কলাগাছ বনে গেছে। এমন বেশ কয়েকজন ব্যবসায়ী আছেন এই এলাকায়। অথচ অন্য ব্যবসা করে এত দ্রুত বড়লোক হওয়া সম্ভব না। তাই ভাঙারি ব্যবসার উপর প্রশাসনের নজরদারি বাড়ানো দরকার বলে মনে করেন তারা।

ধুনট থানার ওসি কৃপা সিন্ধু বালা বলেন, চোরাই মালামাল ক্রয়ের অভিযোগে এক ব্যবসায়ীকে গ্রেপ্তার করে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। এ ছাড়া যাদের বাড়িতে চুরি হয়েছে তারা যদি অভিযোগ করে তাহলে অবশ্যই ব্যবস্থা নেওয়া হবে। ভাঙারি দোকানগুলোতে নজরদারিতে আছে বলেও জানান তিনি।



সাতদিনের সেরা