kalerkantho

বুধবার । ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২২ । ১৩ আশ্বিন ১৪২৯ ।  ১ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪

হবিগঞ্জে বৃক্ষমেলায় অর্ধকোটি টাকার চারা বিক্রি

হবিগঞ্জ প্রতিনিধি    

১৩ আগস্ট, ২০২২ ১৩:০৫ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



হবিগঞ্জে বৃক্ষমেলায় অর্ধকোটি টাকার চারা বিক্রি

হবিগঞ্জে সপ্তাহব্যাপী বৃক্ষমেলায় ৩৬ হাজার ৪৯০টি গাছের চারা বিক্রি হয়েছে। এ থেকে নার্সারি মালিকরা ৪৩ লক্ষ ৬৩ হাজার ৬শ টাকা আয় করেছেন। মেলায় নার্সারি মালিকরা আগাম বিক্রয় আদেশ পেয়েছেন আরও ২৩ হাজার ১৮৪টি গাছের চারার, যার মূল্য প্রায় ৩০ লাখ টাকা। মেলায় এবার সবচেয়ে বেশি বিক্রি হয়েছে ফলজ গাছের চারা।

বিজ্ঞাপন

তবে ঔষধি ও শোভাবর্ধনকারী ফুলের চারার প্রতিও আগ্রহ ছিল যথেষ্ট। ছাদ বাগানের জন্য টবে থাকা গাছের চারার প্রতিও ঝোঁক ছিল ক্রেতাদের।  

চারা ক্রয় করা ছাড়াও মেলায় ঘুরে দেশ-বিদেশি অনেক গাছের সাথে পরিচিত হয়েছেন দর্শনার্থীরা। শিক্ষার্থীদের উপস্থিতিও ছিল চোখে পড়ার মতো।   সবকিছু মিলিয়ে জেলা প্রশাসন ও সিলেট বনবিভাগের উদ্যোগে হবিগঞ্জ কালেক্টরেট প্রাঙ্গণে আয়োজিত এ বৃক্ষমেলা সফল হয়েছে বলে আখ্যায়িত করেছেন আয়োজকরা।

'বৃক্ষপ্রাণে প্রকৃতি-প্রতিবেশ, আগামী প্রজন্মের টেকসই বাংলাদেশ' এই প্রতিপাদ্যে গত ৭ আগস্ট  হবিগঞ্জে বৃক্ষরোপণ অভিযান ও জেলা বৃক্ষমেলা শুরু হয়। আজ শনিবার সকাল সাড়ে ১১টায় জেলা প্রশাসকে সম্মেলন কক্ষে আয়োজন করা হয় সমাপনী অনুষ্ঠানের।  
অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক সার্বিক মিন্টু চৌধুরীর সভাপতিত্বে সমাপনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন সংসদ সদস্য ও জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট মো. আবু জাহির। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন জেলা পরিষদের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা নুরুল ইসলাম, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার শৈলেন চাকমা ও সিলেটের বিভাগীয় বন কর্মকর্তা মো.  তৌফিকুল ইসলাম। পরে প্রধান অতিথি সেরা স্টল মালিকদের হাতে পুরস্কার তুলে দেন।  

আয়োজকরা জানান, এবারের মেলায় সুইটি প্লান্ট নার্সারির বিক্রি হয়েছে সবচেয়ে বেশি ১৩ লক্ষ ১৬ হাজার ৮৬০টাকা। বিউটি প্লান্ট নার্সারির বিক্রি নয় লক্ষ ২৮ হাজার টাকা। মেলায় একটি ইন্ডিয়ান জাতের ‘চায়না ড্রপ বারোমাসি আম’ এর চারার দাম হাঁকা হয় ২৫ হাজার টাকা। তবে সেটি বিক্রি হয়নি। আমলকি গাছের চারা বিক্রি হয়েছে ১২ হাজার টাকায়। মাল্টা,কমলা, ড্রাগন ফল, থাই জাম্বুরা, কাঠলিচু, রাম্বুটানসহ বিভিন্ন বিদেশি ফলের গাছের চারার প্রতি আগ্রহ বেশি ছিল ক্রেতাদের।  



সাতদিনের সেরা