kalerkantho

শুক্রবার । ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২২ । ১৫ আশ্বিন ১৪২৯ ।  ৩ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪

উল্লাপাড়ায় পাটের দামে খুশি কৃষকরা

উল্লাপাড়া (সিরাজগঞ্জ) প্রতিনিধি   

১২ আগস্ট, ২০২২ ১৮:১৭ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



উল্লাপাড়ায় পাটের দামে খুশি কৃষকরা

সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়ায় বিভিন্ন হাটে নতুন পাট কেনাবেচা শুরু হয়েছে ৷ আজ শুক্রবার উল্লাপাড়া হাটে বিপুল পরিমাণ নতুন পাট কেনাবেচা হয়েছে ৷ এক মণ কেনাফ মেছতা পাট চার হাজার থেকে ৪২০০ টাকা আর ৩০০০ থেকে ৩২০০ টাকা মণ দরে তোষা পাট কেনাবেচা হয়েছে ৷ এ ছাড়া দেশি পাট ২৩০০ থেকে আড়াই হাজার টাকা মণ দরে কেনাবেচা হয়েছে ৷ কাঙ্ক্ষিত দাম পেয়ে খুশি কৃষকরা।

এদিকে স্থানীয় পাটের বন্দরে প্রতিদিন শত শত মণ পাট আমদানি হচ্ছে ৷ বিভিন্ন হাট থেকে ব্যবসায়ীরা পাট কিনে আনছেন ৷ আবার বিক্রি করা হচ্ছে মোকাম বাজারের ব্যবসায়ীদের কাছে ৷

উপজেলা কৃষি অফিস থেকে জানানো হয়, গত বছরের চেয়ে এবার পাটের আবাদ সরকারি লক্ষ্যমাত্রা ছাড়িয়েছে। এবারের মৌসুমে এক হাজার ৬৯০ হেক্টর জমিতে পাট আবাদের সরকারি লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়েছিল ৷ এর মধ্যে সবচেয়ে বেশি ৮৮০ হেক্টরে কেনাফ (আসমান তারা) পাটের আবাদ হয়েছে এবং তোষা ৫৩০ হেক্টর, দেশি ২৭৫ হেক্টর ও ৫ হেক্টরে মেছতা পাটের আবাদ করা হয়েছে ৷

শুক্রবার (১২ আগস্ট) উল্লাপাড়া উপজেলা সদরের হাটে প্রায় পাঁচ শ মণ পাট কেনাবেচা হয়েছে৷ বিভিন্ন গ্রামের পাট আবাদকারী কৃষকরা হাটে এসে পাট এনে বিক্রি করেছেন ৷

এদিকে উল্লাপাড়া পাট বন্দরে প্রতিদিন বিপুল পরিমাণ পাট আমদানি হচ্ছে ৷ এখানকার পাট ব্যবসায়ীরা উল্লাপাড়ার বাইরের তালগাছি, সোহাগপুর, বেড়া, চান্দাইকোনাসহ বিভিন্ন এলাকার হাট থেকে পাট কিনছেন।

পাট বন্দরের ব্যবসায়ী ছাইফুল ইসলাম বলেন, তারা বিভিন্ন এলাকার হাট থেকে পাট কিনে গুদামে এনে রাখছেন এবং তা মোকাম বাজারের ব্যবসায়ীদের কাছে বিক্রি করছেন ৷

উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা সুবর্ণা ইয়াসমিন সুমী বলেন, গত মৌসুমের চেয়ে এবারে বেশি পরিমাণ জমিতে পাটের আবাদ হয়েছে ৷ এতে সরকারি লক্ষ্যমাত্রাও পূরণ হয়েছে ৷

বিজ্ঞাপন



সাতদিনের সেরা