kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ৬ অক্টোবর ২০২২ । ২১ আশ্বিন ১৪২৯ ।  ৯ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪

নিরাপদ আবাসনকেন্দ্রে ধর্ষণের শিকার তরুণীর ঝুলন্ত লাশ

নিজস্ব প্রতিবেদক, গাজীপুর   

১০ আগস্ট, ২০২২ ২০:০৭ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



নিরাপদ আবাসনকেন্দ্রে ধর্ষণের শিকার তরুণীর ঝুলন্ত লাশ

গাজীপুরে মহিলা, শিশু ও কিশোরী হেফাজতিদের নিরাপদ আবাসন কেন্দ্র থেকে বাক প্রতিবন্ধী এক তরুণীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। বুধবার সকালে ওই আবাসন কেন্দ্রের ভেতরের টয়লেট ভেতর থেকে বাসন থানা পুলিশ লাশটি উদ্ধার করে।

নিহত হলো মোছা. মিতু (২১) জেলার শ্রীপুর থানার ধর্ষণ ঘটনার ভিক্টিম ছিলেন। তার নাম জানা গেলেও বিস্তারিত পরিচয় জানা যায়নি।

বিজ্ঞাপন

 

পুলিশ ও আবাসন কেন্দ্র সূত্রে জানা গেছে, বুধবার ভোরে হেফাজতিদের নিরাপদ আবাসন কেন্দ্রের তৃতীয় তলার টয়লেটে একটি রডের সঙ্গে ওড়না দিয়ে গলায় ফাঁস লাগানো অবস্থায় মিতুর ঝুলন্ত লাশ দেখতে পায় অন্য নিবাসীরা। পরে বাসন থানা পুলিশকে খবর দেওয়া হলে পুলিশ মিতুর ঝুলন্ত লাশটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠায়। ইতোপূর্বে মিতু কোনবাড়ি শিশু (বালিকা) উন্নয়ন হেফাজত কেন্দ্রে ছিল। সেখান থেকে তাকে এ বছরের ১ মার্চ এ হেফাজত কেন্দ্রে স্থানান্তরিত করা হয়।  

নিরাপদ আবাসন কেন্দ্রের সুপার পারভীন আক্তার বলেন, মিতুর আত্মহত্যার কারণ জানা যায়নি। এর আগেও মিতু একাধিকবার আত্মহত্যার চেষ্টা করে ছিল।

গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের বাসন থাকার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মালেক খসরু বলেন, ময়নাতদন্ত প্রতিবেদন পাওয়ার পর মৃত্যুর কারণ জানা যাবে। এ ঘটনায় অপমৃত্যুর মামলা হয়েছে।



সাতদিনের সেরা