kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২ । ১৪ আশ্বিন ১৪২৯ ।  ২ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪

বাসে ডাকাতি-ধর্ষণে হেলপার রতন ছিলেন ‘দলনেতা’

টাঙ্গাইল প্রতিনিধি   

৯ আগস্ট, ২০২২ ১৯:৩৮ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



বাসে ডাকাতি-ধর্ষণে হেলপার রতন ছিলেন ‘দলনেতা’

টাঙ্গাইলের মধুপুরে চলন্ত বাসে জিম্মি করে ডাকাতি ও ধর্ষণের ঘটনায় গ্রেপ্তারকৃত ১০ জনের মধ্যে চারজন আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন। এ ছাড়াও বাকি ছয়জনকে তিন দিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন বিচারক। আজ মঙ্গলবার বিকেলে টাঙ্গাইলের সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বিচারক ফারজানা হাসানাত এ রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

টাঙ্গাইলের আদালত পরিদর্শক তানভীর আহমেদ কালের কণ্ঠকে বলেন, ‘এ মামলায় দুপুরে ১০ আসামিকে আদালতে তোলা হয়।

বিজ্ঞাপন

এদের মধ্যে চারজন তাদের দোষ স্বীকার করেছে। তারা আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছে। বাকি ছয়জনকে তিন দিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করা হয়েছে। ’

গ্রেপ্তারকৃতদের মধ্যে আসলাম তালুকদার রায়হান, রাসেল তালুকদার, আলাউদ্দিন ও নাঈম সরকার তাদের দোষ স্বীকার করে আদালতে জবানবন্দি দিয়েছে। এ ছাড়াও মাহমুদুল হাসান মুন্না  রতন হোসেন, আব্দুল মান্নান, সোহাগ মন্ডল, বাবু হোসেন জুলহাস, জীবন প্রামাণিক ও হাসমত আলীকে তিন দিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত।

এর আগে সোমবার (৮ আগস্ট) রাত ৮টার দিকে রতনসহ গ্রেপ্তার ১০ জনকে ঢাকা থেকে টাঙ্গাইলে আনা হয়। এর পর রাত সাড়ে ৮টার দিকে তাদের গোয়েন্দা পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়। রবিবার (৭ আগস্ট) তাদের রাজধানীর ঢাকা, গাজীপুর ও সিরাজগঞ্জ থেকে গ্রেপ্তার করে র‍্যাব।

র‌্যাব জানায়, বাসের হেলপারের ছদ্মবেশে ২০১৮ সাল থেকে যাত্রীবাহী বাসসহ বিভিন্নস্থানে ডাকাতি করে আসছিল মাহমুদুল হাসান মুন্না ওরফে রতন হোসেন। তিনি এ চক্রের দলনেতা। তার অধীনে ১৩ থেকে ১৫ জন্য সদস্য রয়েছে। ডাকাতির ঘটনায় দুই দফার কারাভোগও করেছেন তিনি। দ্বিতীয় দফায় ৯ মাস কারাভোগের পর জামিনে বের হয়ে আসেন এবং পুনরায় যাত্রীবাহী বাসে ডাকাতি করে দলনেতা হন রতন হোসেন।

টাঙ্গাইলে বাস ডাকাতি ও গণধর্ষণের ঘটনার মূল পরিকল্পনাকারী র‍্যাবের হাতে গ্রেপ্তার রতন হোসেনের বাড়ি টাঙ্গাইলের মধুপুর উপজেলার কুড়ালিয়া ইউনিয়নের ধলপুর গ্রামে। তার মায়ের নাম বেলী বেগম আর বাবার নাম মজিবর রহমান। রতনের মা-বাবার মধ্যে বিচ্ছেদ হওয়ার মা বেলী বেগম বাবুল নামের আরেকজনকে বিয়ে করেন। পরে বাবুল ও তার ভাই ঢাকায় চলে যায়। সেখানে গিয়ে রতন নানা অপরাধমূলক কর্মকাণ্ডে জড়িয়ে পড়ে।

এদিকে ধর্ষণের শিকার নারী আদালতে জবানবন্দি দিয়েছেন। তার প্রাথমিকভাবে ডাক্তারী পরীক্ষায় ধর্ষণের আলামত পাওয়া গেছে।

ঈগল এক্সপ্রেসের বাসটি মঙ্গলবার (২ আগস্ট) রাত ৮টার দিকে ছাড়ে কুষ্টিয়া থেকে নারায়ণগঞ্জ যাচ্ছিল। ওই রাতে বাসে ডাকাতির পর ধর্ষণ করে ডাকাতরা।



সাতদিনের সেরা