kalerkantho

বুধবার । ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২২ । ১৩ আশ্বিন ১৪২৯ ।  ১ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪

পুলিশ পরিচয়ে ছিনতাই, ভয়ংকর চক্রের ৫ সদস্য গ্রেপ্তার

নরসিংদী প্রতিনিধি   

৮ আগস্ট, ২০২২ ১৬:৫১ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



পুলিশ পরিচয়ে ছিনতাই, ভয়ংকর চক্রের ৫ সদস্য গ্রেপ্তার

ছিনতাইকারী চক্রের ৫ সদস্য : কালের কণ্ঠ

কখনো যাত্রীবেশে, কখনো ডিবি পুলিশ পরিচয়ে ভয়ংকর ছিনতাইকারী ছিল তারা। নরসিংদী, গাজীপুর জেলাসহ বিভিন্ন জেলায় ঘুরে ঘুরে প্রাইভেট কার, সিএনজি ও অটোরিকশা ছিনতাই করাই ছিল তাদের মূল পেশা। ছিনতাই করতে গিয়ে চালকদের বাধার মুখে পড়লে ছুরিকাঘাত করে চালকদের গুরুতর আহত বা খুন করে হলেও তাদের ছিনতাই কাজ অব্যাহত রাখত তারা।

এমনই এক ছিনতাইকারী চক্রের সক্রিয় পাঁচ সদস্যকে গ্রেপ্তার করেছে নরসিংদী জেলা ডিবি পুলিশ।

বিজ্ঞাপন

এ সময় ছিনতাইকারীদের কাছ থেকে একটি প্রাইভেট কার, পাঁচটি অটোরিকশা ও একটি মোবাইল ফোনসেট উদ্ধার করা হয়।

গতকাল সোমবার দুপুরে এক সংবাদ সম্মেলনে গ্রেপ্তারকৃত ভয়ংকর ছিনতাইকারীদের সম্পর্কে এসব তথ্য দেন নরসিংদীর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপরাধ) সাহেব আলী পাঠান।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলো নারায়ণগঞ্জ জেলার সোনারগাঁ থানা এলাকার সাদিপুর গ্রামের আব্দুর রহমানের ছেলে আরিফ মিয়া (২৮), একই গ্রামের তাজুল ইসলামের ছেলে মিম ইসলাম (২৬), লোকমান হোসেনের ছেলে রুবেল মিয়া (৩০), কোনাবাড়ী এলাকার ইউনুস আলীর ছেলে মো. রিপন মিয়া (৩৩) ও নারায়ণগঞ্জের বন্দর থানা এলাকার গুকলদাসের বাগ গ্রামের মৃত আমির হামজার ছেলে আনোয়ার হোসেন (৩৮)।  

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জানান, দীর্ঘদিন ধরেই এই ভয়ংকর চক্র একের পর এক ছিনতাই করে যাচ্ছে। সম্প্রতি এক অটোচালক ইয়াকুব মিয়ার অটো ছিনতাইয়ের অভিযোগ পেয়ে পুলিশ সুপার কাজী আশরাফুল আজীমের নির্দেশে জেলা ডিবি পুলিশের একটি টিম অভিযানে নামে। তারই ধারাবাহিকতায় গত রবিবার (৭ আগস্ট) দিনব্যাপী নারায়ণগঞ্জ জেলার বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে এই ছিনতাইকারী চক্রের পাঁচ সদস্যকে গ্রেপ্তার করা হয়। গ্রেপ্তারকৃতদের বিরুদ্ধে বিভিন্ন থানায় একাধিক মামলা রয়েছে। এ ছাড়া গত রবিবার ভুক্তভোগী অটোচালক ইয়াকুব মিয়া বাদী হয়ে পলাশ থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।



সাতদিনের সেরা