kalerkantho

বুধবার । ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২২ । ১৩ আশ্বিন ১৪২৯ ।  ১ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪

কচুরিপানার ভেতরে স্কুলছাত্রীর মরদেহ, অভিযোগ ধর্ষণের পর হত্যা

অভয়নগর (যশোর) প্রতিনিধি   

৮ আগস্ট, ২০২২ ১৬:৩১ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



কচুরিপানার ভেতরে স্কুলছাত্রীর মরদেহ, অভিযোগ ধর্ষণের পর হত্যা

যশোরের অভয়নগরে নাঈমা খাতুন (৮) নামে দ্বিতীয় শ্রেণির এক ছাত্রীর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। রবিবার (৭ আগস্ট) রাত আনুমানিক ১১টার দিকে উপজেলার প্রেমবাগ ইউনিয়নের বালিয়াডাঙ্গা গ্রামে ধলিয়ার বিলে কচুরিপানার ভেতর থেকে তার লাশ উদ্ধার করা হয়। শিশু নাঈমা মনিরুল বিশ্বাসের মেয়ে এবং বালিয়াডাঙ্গা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের দ্বিতীয় শ্রেণির শিক্ষার্থী ছিল।

নাঈমার মা মর্জিনা বেগম কালের কণ্ঠকে বলেন, 'আমার মেয়ে প্রতিবেশী মৃত কোরেশ মোল্যার ছেলে মৎস্যঘের কর্মচারী আমজাদকে বন্ধু বলে ডাকত।

বিজ্ঞাপন

রবিবার বিকেলে আমজাদের মৎস্যঘেরে খেলা করতে যাচ্ছে বলে বেরিয়ে যায়। সন্ধ্যায় আর বাড়ি ফিরে না এলে আমরা খোঁজাখুঁজি শুরু করি। অনেক খোঁজাখুঁজির পর রাত ১১ টার দিকে আমজাদের মৎস্যঘেরের পাশে মোসলেম উদ্দিনের ডোবার কচুরিপানার ভেতর থেকে নাঈমার একটি হাত দেখতে পাই । খবর পেয়ে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায়। ' 

তিনি আরো বলেন, 'আমার একমাত্র মেয়েকে প্রথমে ধর্ষণ করা হয়েছে। পরে খুন করে লাশ গুম করার উদ্দেশ্যে কচুরিপানার ভেতর লুকিয়ে রাখা হয়েছে। '

এদিকে ঘটনার সাথে জড়িত সন্দেহে আমজাদকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করেছে পুলিশ।

অভয়নগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এ কে এম শামীম হাসান বলেন, প্রাথমিক তদন্তে মৃত্যুর কারণ পরিষ্কার না হওয়ায় ময়নাতদন্তের জন্য লাশ যশোর মর্গে পাঠানো হয়েছে। ময়নাতদন্তের পর বিস্তারিত জানা যাবে। এ ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আমজাদ নামের এক ব্যক্তিকে থানায় তলব করা হয়েছে।



সাতদিনের সেরা