kalerkantho

রবিবার । ১৪ আগস্ট ২০২২ । ৩০ শ্রাবণ ১৪২৯ । ১৫ মহররম ১৪৪৪

তেলের দাম বৃদ্ধির ঘোষণায় মাদারীপুর পেট্রল পাম্পে ভিড়

মাদারীপুর প্রতিনিধি   

৬ আগস্ট, ২০২২ ০১:০৫ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



তেলের দাম বৃদ্ধির ঘোষণায় মাদারীপুর পেট্রল পাম্পে ভিড়

জ্বালানি তেলের দাম বৃদ্ধির ঘোষণায় মাদারীপুরে পেট্রল পাম্পগুলোতে তেল কিনতে ভিড় জমিয়েছেন মোটরসাইকেল ও তেল চালিত যানবাহনের চালকরা।

শুক্রবার (৫ আগস্ট) রাত ১০টার দিকে তেলের দাম বাড়িয়ে প্রজ্ঞাপন জারি করে বিদ্যুৎ জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ মন্ত্রণালয়। এই খবর পাওয়ার পর থেকেই ভিড় বাড়তে শুরু করে জেলার প্রতিটি পেট্রল পাম্পগুলোতে।

প্রজ্ঞাপনে বলা হয় শুক্রবার দিবাগত রাত ১২টা থেকে এ দাম কার্যকর শুরু হবে।

বিজ্ঞাপন

প্রজ্ঞাপনে আরো বলা হয়, বিশ্ববাজারের সঙ্গে জ্বালানি তেলের মূল্য সমন্বয় করতে ডিজেল ও কেরোসিন ১১৪ টাকা, পেট্রল ১৩০ টাকা এবং অকটেন ১৩৫ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে।

সরেজমিনে মাদারীপুর ইউসুপ ফিলিং স্টেশন, সার্বিক ফিলিং স্টেশন, আড়িয়াল খাঁ ফিলিং স্টেশন পেট্রল পাম্পে গিয়ে দেখা যায়, পেট্রল পাম্পগুলো ছিল মোটরবাইকের দখলে। জ্বালানি তেলের দাম বৃদ্ধির কথা শুনে পেট্রল পাম্পগুলোতে ভিড় করতে শুরু করেন মোটরসাইকেল, প্রাইভেটকারসহ তেলচালিত ছোট যানবাহনের চালকেরা।  

এদিকে এত মোটরসাইকেলের চাপ নিতে হিমশিম খেতে হচ্ছে তেল পাম্পের কর্মচারীদের। প্রথমে ২০০ টাকার করে পেট্রল, অকটেন দিলেও পরবর্তীতে মোটরসাইকেলের চাপে ১০০ টাকার করে তেল দিতে হচ্ছে পেট্রল পাম্পের মালিকদের। হঠাৎ করে এভাবে জ্বালানি তেলের দাম বেড়ে যাওয়ায় ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন অনেকেই।

তেল কিনতে আসা মো. হাবিব মুন্সি ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, কোনো নোটিশ না দিয়েই হঠাৎ করে সরকার কেন তেলের দাম বাড়াল আমাদের কাছে তা বলতে হবে। আমার এই মাইক্রোবাস স্টার্ট দিতেই ১ লিটার তেল লাগে, সেখানে মাত্র ১০০ টাকার করে তেল দিচ্ছে পেট্রল পাম্পের মালিক। এখন যদি তেলের জন্য পেট্রল পাম্প বন্ধ হয়ে যায় আমরা বাংলাদেশের সবাই গাড়ি বন্ধ করে দেব।

তেল কিনতে আসা আতাউল শেখ বলেন, ৪৫ মিনিট অপেক্ষা করে মাত্র ১০০ টাকার তেল পাইছি। সরকার এভাবে যদি তেলের দাম বাড়ায় তাহলে এই মোটরসাইকেল ফেলে রেখে অন্য কাজ খুঁজতে হবে।

মাদারীপুর ইউসুফ ফিলিং স্টেশনের মালিক, মো. ইউসুফ জানান, আমাদের এই পাম্পগুলোতে মাত্র দুদিনের তেল মজুদ রাখা হয়। আজ হঠাৎ করে তেলের দাম বাড়ার কথা শুনে সবাই তেল নিতে ভিড় করছে। এখন তো মনে হচ্ছে সব তেল শেষ হয় যাবে। আগামীকাল তেল না থাকলে আমাদের পাম্প বন্ধ রাখতে হবে।



সাতদিনের সেরা