kalerkantho

বুধবার । ১৭ আগস্ট ২০২২ । ২ ভাদ্র ১৪২৯ । ১৮ মহররম ১৪৪৪

অফিস কক্ষে তালা দিয়ে চবির আবাসিক ছাত্রীদের আন্দোলন

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি   

৪ আগস্ট, ২০২২ ১৫:৪১ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



অফিস কক্ষে তালা দিয়ে চবির আবাসিক ছাত্রীদের আন্দোলন

সাত দাবিতে আবাসিক হলের অফিস কক্ষে তালা দিয়ে আন্দোলন করেছেন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের শেখ হাসিনা হলের আবাসিক শিক্ষার্থীরা। তাদের আন্দোলনে হলের কর্মকর্তা-কর্মচারীরা প্রায় দেড় ঘণ্টা আটকা পড়েন।

আজ বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে আন্দোলন শুরু করেন শিক্ষার্থীরা। পরে হল প্রভোস্ট এসে তাদের দাবিগুলো মেনে নেওয়ার আশ্বাস দিলে সাড়ে ১১টার দিকে কক্ষের তালা খুলে দেন আন্দোলনকারীরা।

বিজ্ঞাপন

 

এ শিক্ষার্থীরা হল প্রভোস্টের কাছে আগামী দুই কর্মদিবসের মধ্যে হলের বর্ধিত অংশ খুলে দেওয়া, সেখানে কর্মচারী নিয়োগ, লাইব্রেরি চালু, ওয়াশরুমগুলো দুই দিন পর পর পরিষ্কার করাসহ সাত দাবি জানান তারা।

এ ছাড়া দাবিগুলোর মধ্য ছিল, ক্যান্টিনের খাবারের সমস্যা সমাধান ও রাতে ডাইনিং চালু করা, পানির সমস্যা এবং স্টাফের ড্রেসকোড নির্ধারণ।

আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীদের একজন খাদিজা আলম ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, আমাদের হলের ভেতরের অবস্থা খুবই খারাপ। হলের সর্বত্র অপরিষ্কার-অপরিচ্ছন্নতা। এমনকি টয়লেটগুলোও ঠিকমতো পরিষ্কার করা হয় না। লাইব্রেরি এখন গণরুমে পরিণত হয়েছে। আমরা দীর্ঘদিন ধরে এ নিয়ে প্রশাসনকে অনেক বলেছি। কিন্তু প্রশাসন তাতে কর্ণপাত করছিল না। তাই আমরা বাধ্য হয়ে সাত দাবিতে আন্দোলনে নেমেছি।

শেখ হাসিনা হলের প্রভোস্ট অধ্যাপক ড. এ কে এম রেজাউর রহমান বলেন, হলের ছাত্রীরা আমাদের সন্তানের মতো। তাদের দাবিগুলোও যৌক্তিক। আমি নিজে তাদের এই সমস্যার তদারকি করেছি। তবে আমার একটু সময় দরকার। ইতিমধ্যে এ বিষয়ে ভিসি ম্যামের সঙ্গে কথা বলেছি। আশা করছি আগামী কয়েক দিনের মধ্যে মেয়েদের সব দাবি বাস্তবায়ন করতে পারব।



সাতদিনের সেরা