kalerkantho

শনিবার । ১ অক্টোবর ২০২২ । ১৬ আশ্বিন ১৪২৯ ।  ৪ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪

ঈদে প্রাণহীন দেহে বাড়ি ফিরলেন রুশিয়া

আমতলী (বরগুনা) প্রতিনিধি   

১০ জুলাই, ২০২২ ১৯:৩৭ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ঈদে প্রাণহীন দেহে বাড়ি ফিরলেন রুশিয়া

ঈদ করতে বোনের সঙ্গে বাড়ি ফিরেছেন গার্মেন্ট শ্রমিক রুশিয়া আক্তার (৫০)। তবে জীবিত নয়, ফিরেছেন প্রাণহীন নিথর দেহে। বরগুনার আমতলী উপজেলার আরপাঙ্গাশিয়া ইউনিয়নের তারিকাটা গ্রামের জাহাঙ্গীর হাওলাদারের স্ত্রী রুশিয়া আক্তার ঢাকার একটি গার্মেন্টে শ্রমিক হিসেবে কর্মরত ছিলেন।

গত শুক্রবার ঈদের ছুটিতে তার ছোট বোন মোর্শেদাকে নিয়ে সদরঘাট থেকে আমতলীর লঞ্চ না পেয়ে সেদিন সন্ধ্যায় ফতুল্লা লঞ্চঘাট থেকে পটুয়াখালীর লঞ্চে উঠতে যান রুশিয়া।

বিজ্ঞাপন

সেখানেই গলাচিপাগামী এমভি সাব্বির-২ লঞ্চটি রুশিয়াকে চাপা দেয়। এতে গুরুতর আহত হন তিনি। স্থানীয়রা তাকে দ্রুত উদ্ধার করে স্বাস্থ্য কেন্দ্রে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

নিহত রুশিয়ার মেয়ে জামাই হারুন অর-রশিদ জানান, আমতলীর লঞ্চ না পেয়ে আমার শাশুড়ি তার ছোট বোনকে নিয়ে ফতুল্লা লঞ্চঘাট থেকে পটুয়াখালীর লঞ্চে উঠতে গেলে পাশ থেকে গলাচিপাগামী এমভি সাব্বির-২ নামে একটি লঞ্চ তাকে চাপা দিলে তিনি গুরুতর আহত হন। পরে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান।

গতকাল শনিবার মরদেহ বাড়িতে এনে জানাজা শেষে রুশিয়াকে দাফন করা হয়েছে বলে জানান হারুন। দুর্ঘটনার পর লঞ্চ কর্তৃপক্ষ কোনো ধরনের সহযোগিতা বা খোঁজ নেয়নি বলেও তিনি জানান।

আরপাঙ্গাশিয়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান সোহলী পারভীন মালা রবিবার বিষয়টি নিশ্চিত করে মুঠোফোনে বলেন, এভাবে কোনো মৃত্যু আমাদের কাম্য নয়। সরকারের কাছে দাবি, লঞ্চ দুর্ঘটনায় নিহত রুশিয়ার পরিবারকে যেন আর্থিক সহায়তা দেওয়া হয়।



সাতদিনের সেরা