kalerkantho

বুধবার । ১৭ আগস্ট ২০২২ । ২ ভাদ্র ১৪২৯ । ১৮ মহররম ১৪৪৪

ঝালকাঠিতে ডিবি পুলিশ পরিচয়ে স্কুলশিক্ষকের টাকা ছিনতাই-মারধর

ঝালকাঠি প্রতিনিধি    

১ জুলাই, ২০২২ ১২:৫৪ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ঝালকাঠিতে ডিবি পুলিশ পরিচয়ে স্কুলশিক্ষকের টাকা ছিনতাই-মারধর

ঝালকাঠিতে গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি) পরিচয়ে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের এক শিক্ষককে তুলে নিয়ে দুই লাখ ৩৫ হাজার টাকা ছিনতাইয়ের অভিযোগ পাওয়া গেছে। তাকে মারধর করে অস্ত্র ঠেকিয়ে ভয় দেখানো হয়েছে। ভুক্তভোগী শিক্ষক ফজলুল করিম ঝালকাঠির নলছিটি উপজেলার সেওতা গোবিন্দপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক।  

গত বুধবার দুপুরে ঝালকাঠি জেলা শিল্পকলা একাডেমির সামনের সড়কে এ ঘটনা ঘটে।

বিজ্ঞাপন

মারধরে আহত শিক্ষক ঝালকাঠি সদর হাসপাতালে ভর্তি হয়ে চিকিৎসা নিচ্ছেন। বর্তমানে তিনি নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন বলেও জানান।  

ওই শিক্ষক জানান, পিটিআইয়ের প্রশিক্ষক ভাতার ৩৬ হাজার টাকা এবং ইসলামী ব্যাংক থেকে দুই লাখ টাকা উত্তোলন করে  জেলা শহর থেকে অটোরিকশায় নলছিটি উপজেলার খুলনা গ্রামের বাড়ি যাচ্ছিলেন। পথে বুধবার দুপুর ৩টা ২০ মিনিটের দিকে ঝালকাঠি শহরের শিল্পকলা একাডেমির সামনে একটি সাদা রঙের প্রাইভেট কার অটোরিকশাটি থামিয়ে দেয়। এ সময় ডিবি পুলিশের পোশাক পরা অস্ত্র হাতে থাকা তিন যুবক ওই শিক্ষককে জোর করে প্রাইভেট কারে তুলে নেয়। তিনি চিৎকার করলে চোখমুখ বেঁধে দুই হাতে হ্যান্ডকাফ পরিয়ে দেয়। তারা বলে, তোর নামে হত্যা মামলা আছে। তোর অভিভাবককে ফোন করে দ্রুত ১০ লাখ টাকা দিতে বল। এ কথা বলে তাকে মারধর করা হয়। পরে স্কুলশিক্ষক ফজলুল করিমের কাছে থাকা দুই লাখ ৩৮ হাজার ৫০০ টাকা হাতিয়ে নিয়ে বরিশালের বারইজ্জার হাট নামক এলাকায় ফেলে যায় ডিবি পরিচয়দানকারীরা।  

এ ব্যাপারে ঝালকাঠি সদর থানায় একটি অভিযোগ দেন ওই শিক্ষক। তবে ঝালকাঠি ডিবি পুলিশ এ ধরনের কোনো অভিযান চালায়নি বলে জানিয়েছেন। তারা বিষয়টির তদন্ত শুরু করেছেন বলেও জানান।

ঝালকাঠি গোয়েন্দা পুলিশের ওসি মো. মাইনুদ্দিন বলেন, বিষয়টি আমরা শুনেছি। আমাদের কোনো টিম এ ধরনের কাজ করেনি। এরা একটি চক্র। তাদের খুঁজে বের করার চেষ্টা চলছে। ঝালকাঠির ডিবি বিষয়টি তদন্ত করে দেখছে।  

ঝালকাঠি সদর থানার ওসি খলিলুর রহমান বলেন, ওই শিক্ষকের একটি লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। শহরের বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের সিসি ক্যামেরার ফুটেজ দেখা হবে। তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।   



সাতদিনের সেরা