kalerkantho

রবিবার । ১৪ আগস্ট ২০২২ । ৩০ শ্রাবণ ১৪২৯ । ১৫ মহররম ১৪৪৪

করোনা টিকার ব্যবহৃত সিরিঞ্জ ও ভায়াল বিক্রি করতে গিয়ে ধরা!

শাজাহানপুর (বগুড়া) প্রতিনিধি   

২৭ জুন, ২০২২ ১৬:২০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



করোনা টিকার ব্যবহৃত সিরিঞ্জ ও ভায়াল বিক্রি করতে গিয়ে ধরা!

বগুড়ার শাজাহানপুরে করোনা টিকার ব্যবহৃত সিরিঞ্জ ও ভায়াল বিক্রি করতে গিয়ে ধরা খেয়েছেন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মেডিকেল টেকনোলজিষ্ট (এমটি-ইপিআই) হাসিনা খাতুন। এঘটনায় হাসিনা খাতুনকে শো-কজ করেছে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের কর্তৃপক্ষ। একই সাথে উদ্ধারকৃত সিরিঞ্জ ও ভায়াল ধ্বংশ করা হয়েছে। আজ সোমবার দুপুরে এই তথ্য নিশ্চিত করেন উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. মোতারব হোসেন।

বিজ্ঞাপন

জানা গেছে, করোনা টিকার ব্যবহৃত সিরিঞ্জ ও ভায়াল ধ্বংশ করার কথা থাকলেও তা না করে গত শনিবার (২৫ জুন) স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মেডিকেল টেকনোলজিষ্ট (এমটি-ইপিআই) হাসিনা খাতুন বিপুল পরিমান ব্যবহৃত সিরিঞ্জ ও ভায়াল ভ্যান বোঝাই করে ভাংড়ি হিসেবে বিক্রি করার জন্য নিয়ে যাচ্ছিলেন। এসময় স্থানীয় এক গণমাধ্যমকর্মীর নজরে পড়লে তিনি হাসিনা খাতুনকে জিজ্ঞাসাবাদ করেন। পরে তিনি ভ্যানবোঝাই মালামালসহ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার অফিসে নিয়ে যান।

মেডিকেল টেকনোলজিষ্ট (এমটি-ইপিআই) হাসিনা খাতুন জানান, তাকে ষড়যন্ত্র করে ফাঁসানো হয়েছে। তিনি এই কাজের সাথে জড়িত না।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার আসিফ আহমেদ জানান, বিষয়টি জানানর পর স্বাস্থ্য কর্মকর্তাকে জড়িত ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে যথাযথ ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য বলা হয়েছে।

উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. মোতারব হোসেন জানান, উদ্ধারকৃত ব্যবহৃত সিরিঞ্জ ও ভায়াল ধ্বংশ করা হয়েছে। হাসিনা খাতুনকে তিন দিনের মধ্যে জবাব দেয়ার জন্য শো-কজ করা হয়েছে। পরবর্তিতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।



সাতদিনের সেরা