kalerkantho

সোমবার । ৮ আগস্ট ২০২২ । ২৪ শ্রাবণ ১৪২৯ । ৯ মহররম ১৪৪৪

বারহাট্টায় বন্যা

সড়ক মেরামত করে ত্রাণ পৌঁছে দিল সেনাবাহিনী

বারহাট্টা (নেত্রকোনা) প্রতিনিধি    

২৪ জুন, ২০২২ ২১:২৮ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



সড়ক মেরামত করে ত্রাণ পৌঁছে দিল সেনাবাহিনী

নেত্রকোনার বারহাট্টায় সড়ক মেরামত করে বন্যার্তদের মাঝে ত্রাণ পৌঁছে দিয়েছেন সেনা সদস্যরা। উপজেলার রায়পুর ইউনিয়নের গুরুত্বপূর্ণ স্থান ফকিরের বাজার-সিধলি সড়কটি বন্যার কারণে ব্যাপক ক্ষতিগ্রস্ত হয়। সড়কের বিভিন্ন স্থানে সৃষ্টি হয় বিশাল বিশাল গর্তের। ফলে এই সড়কে সেনাবাহিনীর গাড়ি চলা তো দূরে থাক, হাঁটাও দুরূহ হয়ে পড়ে।

বিজ্ঞাপন

অন্যদিকে এই সড়ক এলাকায় ত্রাণের জন্য অপেক্ষা করছে বন্যাক্রান্ত হাজার হাজার পরিবার। সেনা সদস্যরা আগে এই সড়কটি মেরামত করে অতঃপর দুর্গত পরিবারসমূহের মাঝে ত্রাণ পৌঁছে দেন।  

ত্রাণকার্যে নিয়োজিত নেত্রকোনার কলমাকান্দা ক্যাম্প ইনচার্জ মেজর নেসারুল হক বলেন, '১৯ পদাতিক ডিভিশনের জিওসি ও ঘাটাইল এরিয়া কমান্ডার মেজর জেনারেল মো. নকিব উদ্দিন চৌধুরীর নির্দেশক্রমে ও ৭৭ পদাতিক ব্রিগেডের ব্যবস্থাপনায় সেনাবাহিনীর টাস্কফোর্স গ্রুপ গত ১৮ জুন থেকে খালিয়াজুরী, বারহাট্টা, মোহনগঞ্জ, কলমাকান্দা ও দুর্গাপুর উপজেলার বন্যাদুর্গত মানুষের সেবায় কাজ করছে। বন্যার কারণে ফকিরের বাজার-সিধলি সড়কটি ব্যাপক ক্ষতিগ্রস্ত হয়। সড়ক এলাকায় রয়েছে বন্যা আক্রান্ত শত শত পরিবার। সড়কের দুরবস্থার কারণে ওই সব পরিবারের মানুষের কাছে ত্রাণ বিতরণ ও বিপদগ্রস্তদের উদ্ধার করাসহ অন্যান্য সেবাদান কঠিন হয়ে পড়ে।  
এ অবস্থায় বারহাট্টা ক্যাম্প ইনচার্জ ক্যাপ্টেন মাফির নেতৃত্বে সেনা সদস্যরা স্থানীয় জনসাধারণকে সাথে নিয়ে গত বৃহস্পতি ও শুক্রবার দুই দিনে মাটি ও বালু ভরাট করে সড়কটি মেরামত ও যানবাহন চলাচলের উপযোগী করে। ফলে এলাকার মানুষের চলাচলে দুর্দশা লাঘবের পাশাপাশি তাদের কাছে আমাদের সেবা পৌঁছে দেওয়া অনেকটা সহজ হয়েছে। '

রায়পুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মো. আতিকুর রহমান রাজু বলেন, ইউনিয়ন পরিষদকে সাথে নিয়ে সেনা সদস্যগণ দ্রুততার সাথে সড়কটি মেরামত করেছেন। এতে এলাকাবাসী খুবই উপকৃত হয়েছে।



সাতদিনের সেরা