kalerkantho

রবিবার । ২৬ জুন ২০২২ । ১২ আষাঢ় ১৪২৯ । ২৫ জিলকদ ১৪৪৩

দুই বছর যাবৎ উদ্বোধনের অপেক্ষায় চুয়েটের টিএসসি

রাউজান (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধি   

২৮ মে, ২০২২ ১০:৩৪ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



দুই বছর যাবৎ উদ্বোধনের অপেক্ষায় চুয়েটের টিএসসি

চট্টগ্রাম প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ে নির্মিত ছাত্র-শিক্ষক মিলনায়তন (টিএসসি)। সম্প্রতি তোলা। ছবি : কালের কণ্ঠ

চট্টগ্রাম প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (চুয়েট) ছাত্র শিক্ষক মিলনায়তনের (টিএসসি) নির্মাণকাজ শেষ হয় ২০১৯ সালের ডিসেম্বরে। এর পর থেকে শিক্ষার্থীরা এর উদ্বোধনের অপেক্ষায়। বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রকল্যাণ পরিষদের পরিচালক বলছেন, সব কাজ গুছিয়ে আনা হয়েছে। নীতিমালা তৈরির কাজ চলছে।

বিজ্ঞাপন

এটা শেষ হলে আলোচনা সাপেক্ষে উদ্বোধনের দিনক্ষণ নির্ধারণ করা হবে।

বিশ্ববিদ্যালয় সূত্র জানায়, চুয়েটের উন্নয়ন প্রকল্পের আওতায় ২০০৭ সালে টিএসসি ভবনের নির্মাণকাজ শুরু হয়। এ জন্য প্রথম ধাপে এক কোটি ১০ লাখ টাকা বরাদ্দ দেওয়া হয়। সেই অর্থ দিয়ে ভবনের ভিত্তি কাঠামোটি নির্মাণ করা হয়। এরপর প্রকল্পের জন্য আর কোনো বরাদ্দ না আসায় নির্মাণকাজ আর এগোয়নি। দুই বছরের মতো কাজ বন্ধ থাকে। পর্যাপ্ত বাজেট এবং ব্যবস্থাপনার অভাবে টিএসসির নির্মাণকাজ বন্ধ থাকার বিষয়টি ওই সময় শিক্ষার্থীদের মধ্যে ক্ষোভের সৃষ্টি করে। পরে ২০০৯ সালে আংশিক বাজেট এবং প্রাক্তন শিক্ষার্থীদের সংগঠন চুয়েট অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশনের অর্থায়নে ভবনটির নির্মাণকাজ আবার শুরু হয়। ভবনটির নির্মাণকাজ একতলা পর্যন্ত সম্পন্ন করার জন্য সংগঠনটি প্রায় অর্ধকোটি টাকা দেয়।

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রকৌশল দপ্তর সূত্রে জানা যায়, প্রথম ধাপে শিক্ষা প্রকৌশল অধিদপ্তরের আওতায় প্রকল্পটি শুরু হয়। কিন্তু এক কোটি ১০ লাখ টাকার কাজ শেষ হওয়ার পর অধিদপ্তর থেকে আর কোনো টাকা আসেনি। পরবর্তী সময়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রকৌশল দপ্তরে প্রকল্পটি হস্তান্তর করা হয়। নানা জটিলতার পর ২০১৯ সালের শুরুর দিকে নির্মাণকাজ শেষ হয়। এরপর ভবনটি কর্তৃপক্ষকে হস্তান্তর করে চুয়েটের প্রকৌশল দপ্তর।

ছাত্রকল্যাণ পরিষদের পরিচালক অধ্যাপক রেজাউল করিম টিএসসির কার্যক্রম শিগগিরই চালু করা হবে উল্লেখ করে বলেন, ‘কারিগরি অনেক সমস্যা সমাধান করেছি। টিএসসি চালু করা নিয়ে ছাত্রকল্যাণ পরিষদ কাজ করে যাচ্ছে। আমরা কিছু নীতিমালা তৈরির কাজে আছি। ’



সাতদিনের সেরা