kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ৩০ জুন ২০২২ । ১৬ আষাঢ় ১৪২৯ । ২৯ জিলকদ ১৪৪৩

পাহাড়ের প্রত্যাহারকৃত সেনা ক্যাম্পে হবে এপিবিএন ক্যাম্প : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

ফজলে এলাহী, রাঙামাটি   

২৬ মে, ২০২২ ০১:১০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



পাহাড়ের প্রত্যাহারকৃত সেনা ক্যাম্পে হবে এপিবিএন ক্যাম্প : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

পার্বত্য চট্টগ্রামে শান্তি-শৃঙ্খলার শান্তিপূর্ণ পরিবেশ বজায় রাখার স্বার্থে তিন পার্বত্য জেলায় সেনাবাহিনীর প্রত্যাহারকৃত ক্যাম্পে চুক্তির শর্ত অনুসারেই এপিবিএনের ক্যাম্প স্থাপন করা হবে বলে জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল।

বুধবার (২৫ মে) রাঙামাটি শহরের জেলা প্রশাসক সম্মেলন কক্ষে এক বিশেষ আইন-শৃঙ্খলা বিষয়ক সভা শেষে সাংবাদিকদের দেওয়া এক ব্রিফিংয়ে এ কথা জানিয়েছেন তিনি।

রাত ৮টায় শুরু হওয়া এই সভা শেষ হয় রাত ১০টায়। যাতে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর শীর্ষ কর্মকর্তারা ছাড়া আরো অংশ নেন পার্বত্যমন্ত্রী বীর বাহাদুর এমপি, পার্বত্য চট্টগ্রাম আঞ্চলিক পরিষদ চেয়ারম্যান জ্যোতিরিন্দ্র বোধিপ্রিয় লারমা সন্তু, রাঙামাটির সংসদ সদস্য দীপংকর তালুকদার, খাগড়াছড়ির সংসদ সদস্য কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা, পার্বত্য চট্টগ্রামের সংরক্ষিত নারী আসনের সংসদ সদস্য বাসন্তী চাকমা, মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের সচিব আনোয়ারুল ইসলাম প্রমুখ।

বিজ্ঞাপন

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বছর দুয়েক আগে অনুষ্ঠিত এক সভায় স্থানীয় জনপ্রতিনিধি, প্রথাগত নেতৃত্ব ও বিভিন্ন শ্রেণিপেশার মানুষের সঙ্গে আলোচনায় পাহাড়ে অস্ত্রবাজি, চাঁদাবাজি, বিভিন্ন দল-উপদলের সংঘাত নিরসনসহ বিভিন্ন পরামর্শ ও সুপারিশের পরিপ্রেক্ষিতে, আজকের সভায় পার্বত্য শান্তিচুক্তির আলোকে সেনাবাহিনীর প্রত্যাহারকৃত ক্যাম্পের জায়গায় এপিবিএন মোতায়েনসহ বিভিন্ন বিষয় নিয়ে খোলামেলা আলোচনা হয়েছে বলে জানিয়েছেন। সভায় পার্বত্য শান্তিচুক্তি, ভূমি কমিশনসহ অন্যান্য বিষয় নিয়েও আলোচনা হয়েছে বলে জানান মন্ত্রী।  

তিনি পার্বত্য শান্তিচুক্তির অন্যান্য বিষয়ও ধীরে ধীরে বাস্তবায়িত হচ্ছে বলেও জানান।

পাহাড়ের আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি রক্ষায় এপিবিএন ও পুলিশই যথেষ্ট বলে মন্তব্য করে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘প্রয়োজন হলে র‌্যাবও আসবে, পুলিশও থাকবে। আমাদের পুলিশ এখন আগের চেয়েও অনেক সক্ষম। ’  

তবে এই বিষয়ে সাংবাদিকদের কাছে কিছু জানাতে অপারগতা প্রকাশ করেছেন পার্বত্য চট্টগ্রাম আঞ্চলিক পরিষদ চেয়ারম্যান জ্যোতিরিন্দ্র বোধিপ্রিয় লারমা সন্তু।  



সাতদিনের সেরা