kalerkantho

শনিবার । ২৫ জুন ২০২২ । ১১ আষাঢ় ১৪২৯ । ২৪ জিলকদ ১৪৪৩

ভুল অস্ত্রোপচারে প্রসূতির মৃত্যু

সিংগাইরে সিটি হাসপাতাল সিলগালা, ৯ জনের কারাদণ্ড

সিংগাইর, হরিরামপুর (মানিকগঞ্জ) প্রতিনিধি   

২৬ মে, ২০২২ ০০:০৮ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



সিংগাইরে সিটি হাসপাতাল সিলগালা, ৯ জনের কারাদণ্ড

ভুল অস্ত্রোপচারে এক প্রসূতির মৃত্যুর অভিযোগ ওঠার পর মানিকগঞ্জের সিংগাইরে সিটি হাসপাতাল ও ডায়াগনস্টিক সেন্টার সিলগালা করা হয়েছে। সেই সঙ্গে হাসপাতালের ৯ জন কর্মকর্তা-কর্মচারীকে আটকের পর বিভিন্ন মেয়াদে কারাদণ্ডাদেশ দেওয়া হয়। গতকাল বুধবার দুপুরে এ অভিযান চালান ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) শাম্মা লাবিবা অর্নব।

সিংগাইর উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. নুজহাত নওরীন আমীন বলেন, সিটি হাসপাতাল ও ডায়াগনস্টিক সেন্টারের লাইসেন্স ও প্রয়োজনীয় কোনো কাগজপত্র নেই।

বিজ্ঞাপন

হাসপাতালে কোনো ডিগ্রিধারী ডাক্তার-নার্সও নেই। যে চিকিত্সক প্রসূতি সাবিনার অস্ত্রোপচার করেছেন তিনি ডিগ্রিধারী চিকিত্সক নন। যিনি অজ্ঞান করেছেন তাঁরও কোনো ডিগ্রিম নেই। বিষয়টি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) দিপন দেবনাথকে জানানোর পর সেখানে অভিযান চালান ভ্রাম্যমাণ আদালত।

এ বিষয়ে ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট শাম্মা লাবিবা অর্নব জানান, সিটি হাসপাতাল ও ডায়াগনস্টিক সেন্টারের লাইসেন্স ও কাগজপত্র দেখতে চাইলে মালিক নজরুল ইসলাম স্বপন কৌশলে পালিয়ে যান। তাঁর হাসপাতালের ওপরে তিনটি কক্ষে স্যানিটারি প্যাড তৈরির অবৈধ কারখানার সন্ধান পাওয়া গেছে। সেখানে তিনি বিভিন্ন নামিদামি কম্পানির নামে নকল স্যানিটারি প্যাড তৈরি করতেন। পরে হাসপাতালটি সিলগালা করে প্রতিষ্ঠানটির ৯ জন কর্মকর্তা-কর্মচারীকে আটকের পর দুজনকে এক মাস এবং সাতজনকে ১৫ দিন করে বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেওয়া হয়। কারখানা থেকে জব্দ করা হয় বিপুল পরিমাণ স্যানিটারি প্যাড ও উপকরণ।

এ সময় ইউএনও দিপন দেবনাথ, সিংগাইর উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. নুজহাত নওরীন আমীন এবং তদন্ত কমিটির সদস্যসচিব ডা. ফারহানা নবি উপস্থিত ছিলেন।

গত ২২ মে গভীর রাতে সিটি হাসপাতাল ও ডায়াগনস্টিক সেন্টারে সাবিনা আক্তার নামের এক প্রসূতির অস্ত্রোপচার করা হয়। তিনি উপজেলার সায়েস্তা ইউনিয়নের টাকিমারা গ্রামের মুখলেছ মিয়ার স্ত্রী ও জয়মন্টপ ইউনিয়নের উত্তর বাহাদিয়া গ্রামের ছকেল উদ্দিনের মেয়ে। তাঁর অস্ত্রোপচার করেন ইমা বিনতে ইউনুছ। অভিযোগ ওঠে, ভুল অস্ত্রোপচারের কারণে অধিক রক্তক্ষরণে ওই রাতেই হাসপাতালের অস্ত্রোপচার কক্ষে সাবিনার মৃত্যু হয়। পরে ঘটনাটি ধামাচাপা দিতে অ্যাম্বুল্যান্স ডেকে মৃত অবস্থায় সাবিনাকে ঢাকায় রেফার্ড করে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।



সাতদিনের সেরা