kalerkantho

সোমবার । ২৭ জুন ২০২২ । ১৩ আষাঢ় ১৪২৯ । ২৬ জিলকদ ১৪৪৩

উল্লাপাড়ায় ঝড়-বৃষ্টিতে তলিয়ে গেছে পাকা বোরোর ক্ষেত

উল্লাপাড়া (সিরাজগঞ্জ) প্রতিনিধি   

২১ মে, ২০২২ ১৫:৫৭ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



উল্লাপাড়ায় ঝড়-বৃষ্টিতে তলিয়ে গেছে পাকা বোরোর ক্ষেত

সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়ায় গত বৃস্পতিবার রাতের প্রবল ঝড়-বৃষ্টিতে তলিয়ে গেছে নিম্নাঞ্চলের পাকা বোরো ধানক্ষেত। পানিতে তলিয়ে যাওয়ায় ধান কাটা যাচ্ছে না। উল্লাপাড়া উপজেলার নিম্নাঞ্চলের বোরো ধানক্ষেতে পানি প্রবেশ করায় কাটা ধান এখন পানিতে ভাসছে। পানি জমে থাকা জমির ধান কাটতে কৃষকদের গুনতে হচ্ছে বাড়তি টাকা।

বিজ্ঞাপন

এতে কৃষকরা পড়েছেন মহাবিপাকে।  

এদিকে জমিতে পানি থাকায় জোঁকের আক্রমণ ও শ্রমিক সংকট দেখা দিয়েছে। প্রতিদিন ধানকাটা প্রত্যেক শ্রমিককে মজুরি দিতে হচ্ছে ৭০০ থেকে ৮০০ টাকা, সঙ্গে দুই বেলা খাবার। এতে কৃষক হিমশিম খাচ্ছে। আয়ের চেয়ে ব্যয় হচ্ছে বেশি।

উপজেলার মনোহরা গ্রামের কৃষক মোজাহার আলী জানান, কয়েক দিন ধরে একটানা ভারি বৃষ্টির ফলে নদ-নদী ভরে গিয়ে মাঠে পানি প্রবেশ করেছে। এতে নিম্নাঞ্চলের ধান তলিয়ে যাচ্ছে। তার সঙ্গে বৃহস্পতিবার রাতে অতিবৃষ্টি হওয়ায় আরো সমস্যা বেড়েছে। ধান কাটার জন্য শ্রমিক মিলছে না। দু-একজন পাওয়া গেলেও ৭০০ থেকে ৮০০ টাকা ও তার সঙ্গে দুই বেলা খাবার দিতে হচ্ছে। এতে যে ধান পাওয়া যায় তাতে আয়ের চেয়ে ব্যয় হচ্ছে বেশি।

উপজেলার মোহনপুর ইউনিয়ন উপসহকারী কৃষি কর্মকর্তা মো. রমজান আলী জানান,  বৃহস্পতিবার রাতে অতিবৃষ্টির ফলে নিম্নাঞ্চলের মাঠগুলো বৃষ্টির পানিতে ভরে গেছে। কিছু কিছু মাঠের ধান বাতাসে পড়ে গেছে। বর্তমানে ধান কাটা শ্রমিকের সংকট চলছে। শ্রমিকের অভাবে ধান ক্ষেতে থেকে নষ্ট হওয়ার আশঙ্কা রয়েছে।



সাতদিনের সেরা