kalerkantho

মঙ্গলবার । ২৮ জুন ২০২২ । ১৪ আষাঢ় ১৪২৯ । ২৭ জিলকদ ১৪৪৩

ভোলায় কালবৈশাখী ঝড়ে ডুবল বাল্কহেড, ৬ শ্রমিক উদ্ধার

ভোলা প্রতিনিধি   

২১ মে, ২০২২ ১৫:৪৯ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ভোলায় কালবৈশাখী ঝড়ে ডুবল বাল্কহেড, ৬ শ্রমিক উদ্ধার

ভোলায় কালবৈশাখী ঝড়ের কবলে পড়ে বালুবোঝাই বাল্কহেড ডুবির ঘটনা ঘটেছে। এ সময় বাল্কহেডে থাকা ছয়জন শ্রমিককে উদ্ধার করা হয়। এ সময় ঝড়ে ব্যবসায়ীদের তিনটি দোকান বিধ্বস্ত হয়েছে। আজ শনিবার (২১ মে) সকালে সদর উপজেলার ধনিয়া তুলাতুলী মাছঘাট এলাকায় মেঘনা নদীতে এ ঘটনা ঘটে।

বিজ্ঞাপন

তুলাতুলী মাছঘাটের আড়তদার মো. ইউনুস জানান, ভোর থেকে ওই এলাকায় গুঁড়ি গুঁড়ি বৃষ্টি শুরু হয়। সকাল সাড়ে ৭টার দিকে হঠাৎ কালবৈশাখী ঝড়ে মেঘনা নদী উত্তাল হয়ে ওঠে। একপর্যায়ে ঝড়ের কবলে পড়ে নদীতে থাকা এমভি তামিম-শামিম নামে একটি বালুবোঝাই বাল্কহেড ডুবে যায়। পরে স্থানীয়দের সহায়তায় বাল্কহেডে থাকা ছয়জন শ্রমিককে উদ্ধার করা হয়। এ ছাড়া কালবৈশাখী ঝড়ে তুলাতুলি মাছঘাট এলাকার আবু তাহের, মো. জসিম ও নান্নু ডাক্তারের দোকান ও মাছের আড়ৎ বিধ্বস্ত হয়।

ডুবে যাওয়া এমভি তামিম-শামিম বাল্কহেডের নাবিক মো. মনির বলেন, নদীভাঙনের জরুরি কাজে বালু নিয়ে যাওয়ার সময় হঠাৎ কালবৈশাখী ঝড়ে তাদের বালুবোঝাই বাল্কহেড ডুবে যায়। পরে তারা নদীতে ঝাঁপিয়ে পড়লে স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করেন।

ভোলার ইলিশা নৌ-থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. শাহাজালাল জানান, ভোলার মেঘনা নদীর ভাঙন রোধে জরুরি কাজে ব্যবহারের জন্য বালুবোঝাই করে এমভি তামিম-শামিম নামে একটি বাল্কহেড যাচ্ছিল। তুলাতুলী মাছঘাটে এসে মেঘনা নদীতে বাল্কহেডটি কালবৈশাখী ঝড়ের কবলে পড়ে ডুবে যায়। তবে ওই সময় বাল্কহেডটিতে থাকা শ্রমিকরা স্থানীয়দের সহায়তায় তীরে উঠে যাওয়ায় কেউ হতাহত হননি।



সাতদিনের সেরা