kalerkantho

রবিবার । ২৬ জুন ২০২২ । ১২ আষাঢ় ১৪২৯ । ২৫ জিলকদ ১৪৪৩

স্কুলছাত্রীকে হাতুড়িপেটা, বখাটে কারাগারে

পাবনা প্রতিনিধি   

২০ মে, ২০২২ ২০:৩৪ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



স্কুলছাত্রীকে হাতুড়িপেটা, বখাটে কারাগারে

প্রেমের প্রস্তাব প্রত্যাখান করায় নবম শ্রেণির ছাত্রীকে হাতুড়ি দিয়ে পিটিয়ে জখম করা বখাটেকে গ্রেপ্তার করে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠিয়েছে পুলিশ। আহত শিক্ষার্থী পাবনার সুজানগর উপজেলার সাতবাড়িয়া বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণির ছাত্রী।

সুজানগর থানার ওসি আব্দুল হান্নান জানান, এ ঘটনায় বিদ্যালয়টির প্রধান শিক্ষক আলাউদ্দিন বাদী হয়ে ১৯ মে বখাটে ফাহাদ মোল্লাকে আসামি করে সুজানগর থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা দায়ের করলে পুলিশ ১৯ মে সন্ধ্যা ৭টায় ফাহাদকে ঢাকা থেকে গ্রেপ্তার করে ২০ মে দুপুরে আদলতের মাধ্যমে পাবনা জেলা কারাগারে প্রেরণ করে। অভিযুক্ত ফাহাদ (১৭) সাতবাড়িয়া ইউনিয়নের ফকিরপুর গ্রামের মোহা. ফারুক মোল্লার ছেলে।

বিজ্ঞাপন

জানা যায়, বখাটে ফাহাদ মোল্লা দীর্ঘদিন ধরে ওই ছাত্রীকে উত্ত্যক্ত করত। স্কুলে যাতায়াতের সময় পথরোধ করে প্রেমের প্রস্তাব দিত। তার প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় সে ওই ছাত্রীর ওপর ক্ষিপ্ত হয়। বুধবার বিকালে স্কুল ছুটির পর বান্ধবীদের সাথে বাড়ি ফিরছিল ওই ছাত্রী। তারা সাতবাড়িয়া কলেজের সামনে পৌঁছালে ফাহাদ ওই ছাত্রীকে লাথি দিয়ে রাস্তায় ফেলে দেয় এবং হাতুড়ি দিয়ে পিটিয়ে জখম করে। এ সময় তার চিৎকারে স্থানীয়রা এগিয়ে এলে ফাহাদ পালিয়ে যায়।

সাতবাড়িয়া বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আলাল উদ্দিন ও শিক্ষার্থীর পরিবার জড়িত যুবকের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি করেছেন।



সাতদিনের সেরা