kalerkantho

রবিবার । ২৬ জুন ২০২২ । ১২ আষাঢ় ১৪২৯ । ২৫ জিলকদ ১৪৪৩

মায়ের বকুনির ফাঁস গলায় পরল মুজাহিদ

মণিরামপুর (যশোর) প্রতিনিধি   

১৮ মে, ২০২২ ১৭:৫৯ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



মায়ের বকুনির ফাঁস গলায় পরল মুজাহিদ

প্রতীকী ছবি

যশোরের মণিরামপুরে আল-মুজাহিদ (১৪) নামে অষ্টম শ্রেণিপড়ুয়া এক ছাত্র গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে। মঙ্গলবার রাত ১০টার দিকে উপজেলার ফতেয়াবাদ পশ্চিম পাড়ায় ঘটনাটি ঘটে। মুজাহিদ ওই গ্রামের খবির উদ্দিনের ছেলে। সে মণিরামপুর আদর্শ সম্মিলনী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের অষ্টম শ্রেণির ছাত্র ছিল।

বিজ্ঞাপন

পুলিশ জানিয়েছে, ঘুড়ি ওড়ানোকে কেন্দ্র করে গত মঙ্গলবার রাতে মুজাহিদের মা ছেলেকে বকাঝকা করেন। এ কারণে অভিমান করে সে আত্মহত্যা করে।

মণিরামপুর সদর ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান নিস্তার ফারুক বলেন, মঙ্গলবার রাতে মুজাহিদকে বকাঝকা করেন তার মা। এরপর তার মা রান্নাঘরে রান্নাবান্নার কাজ করছিলেন। আর মুজাহিদ নিজের ঘরে ছিল। রান্না শেষে ছেলেকে খাবার খেতে ডাকাডাকি করেন মা। তার কোনো সাড়া না পেয়ে ঘরে গিয়ে দেখেন ফ্যানের হুঁকের সাথে গলায় ফাঁস দিয়ে ঝুলছে মুজাহিদ।

চেয়ারম্যান আরো বলেন, এরপর দ্রুত রশি কেটে ছেলেকে উদ্ধার করেন মা। তখনো জীবিত ছিল মুজাহিদ। পরে দ্রুত তাকে মণিরামপুর হাসপাতালে নেওয়া হয়। সেখান থেকে চিকিৎসক তাকে যশোর সদর হাসপাতালে পাঠান। অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় তাকে খুলনা ২৫০ শয্যা হাসপাতালে নেওয়ার পথে রাত ৩টার দিকে মারা যায় মুজাহিদ।

মণিরামপুর থানার ওসি নূর-ই-আলম সিদ্দীকি বলেন, লেখাপড়া ছেড়ে ঘুড়ি ওড়ানোয় ছেলেকে বকাঝকা করেন মুজাহিদের মা। এ কারণে অভিমান করে গলায় ফাঁস দেয় ছেলেটি। ওসি আরো বলেন, এ ঘটনায় থানায় অপমৃত্যু মামলা হয়েছে।   বুধবার দুপুরে ময়নাতদন্তের জন্য লাশ উদ্ধার করে মর্গে পাঠানো হয়েছে।



সাতদিনের সেরা