kalerkantho

রবিবার । ২৬ জুন ২০২২ । ১২ আষাঢ় ১৪২৯ । ২৫ জিলকদ ১৪৪৩

হাতি দিয়ে চাঁদাবাজি!

মদন (নেত্রকোনা) প্রতিনিধি   

১৭ মে, ২০২২ ২০:৪২ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



হাতি দিয়ে চাঁদাবাজি!

হাতির পিঠে বসা এক যুবক। আর হাতি দোকানের সামনে দাঁড়িয়ে শুঁড় এগিয়ে দিচ্ছে সোজা দোকানির কাছে। শুঁড়ের মাথায় টাকা গুঁজে না দিলে দোকান থেকে শুঁড় তুলছে না হাতি। টাকা দিলেই শুঁড় তুলে জানাচ্ছে সালাম।

বিজ্ঞাপন

এক দোকান থেকে আরেক দোকানে ঘুরে টাকা নিচ্ছে হাতি।

প্রতি দোকান থেকে ১০ টাকা থেকে শুরু ৫০ টাকা পর্যন্ত চাঁদা নেওয়া হচ্ছে। আজ মঙ্গলবার বিকেলে এভাবে নেত্রকোনার মদন পৌর সদরে হাতি দিয়ে চাঁদাবাজি চলছলি। দুই দিন আগে সিলেট এলাকা থেকে হাতি নিয়ে মদনে এসেছেন হাতির মালিক।

সরেজমিন ঘুরে দেখা গেছে, দোকান ও সড়কে চলাচল করা গাড়ি থেকে হাতি টাকা নিচ্ছে। টাকা না দিলে বিকট শব্দে হুংকার করে। তখন দোকনদাররা ভয়ে টাকা দিয়ে দেয়। এ সময় পৌর সদরে মুদি দোকানি কাইয়ুম মিয়া, আবুল কালামসহ কয়েকজন জানান, দোকানের সামনে এসে শুঁড় ঢুকিয়ে টাকা চায় হাতি। টাকা না দিলে দোকানের সামনে থেকে যায় না। প্রথমে ১০ টাকা দিয়েছিলাম। টাকা ফিরিয়ে দেওয়ায় বাধ্য হয়ে ২০ টাকা দিয়েছি। টাকা না দিলে ভাঙচুর করতে পারে। তাই ভয়ে টাকা দিয়ে দিই।

অটোরিকশাচালক নূর আলম বলেন, 'যাওয়ার পথে অটো আটকে দিল হাতি। ১০ টাকা দিয়েছি, পরে গাড়ি ছেড়ে দিয়েছে। এত বড় প্রাণী। ভয় পেয়ে অনেকেই টাকা দিচ্ছে। '

হাতির পিঠে বসা এক যুবকের কাছে নাম-পরিচয় জানতে চাইলে তিনি পরিচয় দিতে অপারগতা প্রকাশ করেন। তবে হাতি নিয়ে তিনি সিলেট এলাকা থেকে এসেছেন বলে জানান। হাতি দিয়ে এভাবে কেন টাকা নিচ্ছেন জানতে চাইলে কোনো কথা বলেননি তিনি।

মদন থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মুহাম্মদ ফেরদৌস আলম বলেন, 'আমি খবর পেয়ে পুলিশ পাঠিয়েছি। হাতি দিয়ে টাকা উত্তোলন দ্রুত বন্ধ করা হচ্ছে। '



সাতদিনের সেরা