kalerkantho

রবিবার । ২৬ জুন ২০২২ । ১২ আষাঢ় ১৪২৯ । ২৫ জিলকদ ১৪৪৩

কুমিল্লা সিটি নির্বাচনে

‘নেত্রী কষ্টিপাথরে যাচাই করে রিফাতকে নৌকার মনোনয়ন দিয়েছেন’

কুমিল্লা প্রতিনিধি   

১৭ মে, ২০২২ ১৩:১৭ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



‘নেত্রী কষ্টিপাথরে যাচাই করে রিফাতকে নৌকার মনোনয়ন দিয়েছেন’

কুমিল্লা সিটি করপোরেশন (কুসিক) নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত মেয়র প্রার্থী আরফানুল হক রিফাতকে নিয়ে বিতর্ক শুরু হওয়ায় বিষয়টি নিয়ে কথা বলেছেন মহানগর আওয়ামী লীগের নেতারা। গত কয়েকদিন ধরেই আলোচনা চলছে ২০১৮ সালে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় থেকে করা একটি তালিকায় কুমিল্লা অঞ্চলে মাদকের পৃষ্ঠপোষকদের তালিকায় এক নম্বরে রয়েছে রিফাতের নাম। রিফাত কুমিল্লা মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক। গত শুক্রবার (১৩ মে) আওয়ামী লীগের স্থানীয় সরকার মনোনয়ন বোর্ডের সভায় তাঁকে কুসিক নির্বাচনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী ঘোষণা করা হয়।

বিজ্ঞাপন

এ অবস্থায় কুমিল্লায় কর্মরত গণমাধ্যমকর্মীদের সঙ্গে মতবিনিময় সভার আয়োজন করে কুমিল্লা মহানগর আওয়ামী লীগ ও অঙ্গসংগঠনের নেতারা। মঙ্গলবার (১৭ মে) সকাল সাড়ে ১০টায় নগরীর কান্দিরপাড় এলাকার টাউনহল অডিটোরিয়ামে অনুষ্ঠিত সভায় বক্তব্য রাখেন কুমিল্লা মহানগর আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আতিক উল্লাহ খোকন ও আবিদুর রহমান জাহাঙ্গীর।

এ সময় তাঁরা বলেন, বঙ্গবন্ধু কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনা যাচাই-বাছাই ছাড়া কোনো সিদ্ধান্ত নেন না। তিনি কষ্টিপাথরে যাচাই করে আরফানুল হক রিফাতকে নৌকার মনোনয়ন দিয়েছেন। রিফাত দলের জন্য নিবেদিত প্রাণ। তিনি রাজনীতি করতে গিয়ে অসংখ্যবার নির্যাতনের শিকার হয়েছেন। তিনি তৃণমূল থেকে উঠে আসা একজন আদর্শবান নেতা। তাকে নিয়ে এসব অপপ্রচার ষড়যন্ত্রের একটি অংশ। কুসিক নির্বাচনে রিফাতের নিশ্চিত বিজয় ঠেকাতে একটি মহল তার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র শুরু করেছে।

তাঁরা আরও বলেন, যেই তালিকার কথা বলা হচ্ছে, সেটিতো ২০১৮ সালের। আমাদের প্রশ্ন রিফাত দলীয় মনোনয়ন পাওয়ার পর কেন বিষয়টি নিয়ে লেখালেখি শুরু হলো। রিফাত যদি মাদকের পৃষ্ঠপোষক হতেন- তাহলে আগে কেন তার বিরুদ্ধে সংবাদ প্রচার করা হলো না। এছাড়া যেই তালিকার কথা বলা হচ্ছে সেই বিষয়ে রিফাতসহ আমরা কিছুই জানি না। যেই সংবাদমাধ্যম রিফাতের বিরুদ্ধে প্রথম মিথ্যা রিপোর্ট করেছে, সেটির বিরুদ্ধে আমরা আদালতে মামলা দায়ের করব। আপনারা কুমিল্লার উন্নয়নের স্বার্থে আরফানুল হক রিফাতকে সহযোগিতা করুন। ইনশাআল্লাহ, আগামী ১৫ জুন কুমিল্লার মানুষ নৌকায় ভোট দিয়ে রিফাতকেই বেছে নেবেন।

সভায় অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, কুমিল্লা সদর উপজেলা চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট আমিনুল ইসলাম টুটুল, মহানগর আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক চিত্তরঞ্জন ভৌমিক, আবদুল হাই বাবলু, মহানগর যুবলীগের আহবায়ক আবদুল্লাহ আল মাহমুদ শহীদ, মহানগর ছাত্রলীগের আহবায়ক আবদুল আজিজ সিহানুক, কুমিল্লা টাউনহলের সাধারণ সম্পাদক হেলাল উদ্দিন, মহানগর স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক সাদেকুর রহমান পিয়াস প্রমুখ।

প্রসঙ্গত, ২০১৮ সালের ৯ জানুয়ারি প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় থেকে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে মাদক, চোরাকারবার ও এর পৃষ্ঠপোষকদের চট্টগ্রাম বিভাগের তালিকাসহ একটি চিঠি পাঠানো হয়। যাচাই-বাছাইয়ের পর তালিকাভুক্তদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার অনুরোধ জানানো হয় ওই চিঠিতে। গোয়েন্দা সংস্থার সহযোগিতায় দেশব্যাপী ওই তালিকা করা হয়। ওই তালিকায় কুমিল্লা জেলার মাদক ও চোরাকারবারিদের ১৬ জন পৃষ্ঠপোষকের নাম ছিল। তালিকায় দেখা যায়, কুমিল্লা নগরীর মনোহরপুর এলাকার বাসিন্দা আরফানুল হক রিফাতকে মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক হিসেবে উল্লেখ করা হয়েছে।



সাতদিনের সেরা