kalerkantho

বুধবার ।  ১৮ মে ২০২২ । ৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯ । ১৬ শাওয়াল ১৪৪৩  

মোবাইলে 'বন্ধু' সেজে বউ-কোপানো বিয়েপাগলকে ধরলেন ওসি

পানছড়ি (খাগড়াছড়ি) প্রতিনিধি   

৩ মে, ২০২২ ১৭:৫১ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



মোবাইলে 'বন্ধু' সেজে বউ-কোপানো বিয়েপাগলকে ধরলেন ওসি

মোবাইলে বন্ধু বানিয়ে এজাহারনামীয় একমাত্র আসামি আলী নেওয়াজকে আটক করেছে পানছড়ি থানার ওসি আনচারুল করিম। আটক আলী নেওয়াজ উপজেলার উল্টাছড়ি ইউপির ওমরপুর গ্রামের বাসিন্দা। তারঁ সাবেক বাসস্থান ময়মনসিংহ জেলার হালুয়াঘাট থানাধীন মোজাখালী গ্রামে।

আলি নেওয়াজ গত ১ মে রাত আনুমানিক পৌনে ৯টার দিকে পানছড়ি তালুকদার পাড়ায় ভাড়া ঘরের উঠানে ধারালো দা দিয়ে এলোপাতাড়ি গলায় ও পিঠে কুপিয়ে গুরুতর আহত করেন স্ত্রী জরিনা আক্তার (১৯) কে।

বিজ্ঞাপন

জরিনা মাটিরাঙা উপজেলার তবলছড়ি ইউপির সিংহপাড়ার আবদুল কাদের ও সুফিয়া আক্তারের মেয়ে। জরিনাকে গুরুতর আহত করে গাঢাকা দেয় আলী নেওয়াজ। জরিনা বর্তমানে খাগড়াছড়ি সদর হাসপাতালে আশঙ্কাজনক অবস্থায় চিকিৎসাধীন।

জরিনার ভাই আকতার হোসেন এ ব্যাপারে বাদী হয়ে পানছড়ি থানায় একটি মামলা করেন। আলী নেওয়াজের শ্যালক আকতার জানায়, তার দুলাভাই বিয়ে করেছে এক হালি। যৌতুকের জন্য প্রায়ই মারধর করত। শেষ পর্যন্ত বোনটাকে কুপিয়ে মারার চেষ্টা চালিয়েছে। আলী নেওয়াজের মতো বিয়েপাগলের কঠিন শাস্তি দাবি করেন তিনি।

এদিকে ঘটনার ১৬ ঘণ্টা পার না হতেই মোবাইলে বন্ধু সেজে ২ মে সোমবার আলী নেওয়াজকে আটক করেন পানছড়ি থানার ওসি আনচারুল করিম। মামলার তদন্ত কর্মকর্তা এসআই অনিক দে জানান, ওসি স্যারের সুন্দর একটি পরিকল্পনায় আসামি সহজেই কুপোকাত হয়। ওসি আনচারুল করিম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, আসামিকে ঈদের দিন সকালেই আদালতে পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে।



সাতদিনের সেরা