kalerkantho

মঙ্গলবার ।  ১৭ মে ২০২২ । ৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯ । ১৫ শাওয়াল ১৪৪৩  

বোয়ালমারীতে আধিপত্য বিস্তার নিয়ে ভাঙচুর-লুটপাট, আটক ৫

নিজস্ব প্রতিবেদক, ফরিদপুর   

১৪ এপ্রিল, ২০২২ ১৭:৪৭ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



বোয়ালমারীতে আধিপত্য বিস্তার নিয়ে ভাঙচুর-লুটপাট, আটক ৫

ফরিদপুরের বোয়ালমারীতে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে গতকাল বুধবার সন্ধ্যায় দুই পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষে বাড়িঘর ভাঙচুর ও লুটপাটের অভিযোগ পাওয়া গেছে। বোয়ালমারী উপজেলার পরমেশ্বরদী ইউনিয়নের ডহরনগর তদন্তকেন্দ্রের পুলিশ ভাঙচুর ও লুটপাটের অভিযোগে ঘটনাস্থল থেকে ৫ জনকে আটক করেছে।  

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, উপজেলার পরমেশ্বরদী ইউনিয়নের পরমেশ্বরদী গ্রামের সৈয়দ মাসুদ এবং নবনির্বাচিত ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আ. মান্নান মাতুব্বরের মধ্যে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলছিল। এলাকায় আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে চলা বিরোধের জেরে গতকাল বুধবার সন্ধ্যায় পরমেশ্বরদী কুমার নদের সেতু সংলগ্ন এলাকায় সৈয়দ মাসুদের সমর্থক ও চেয়ারম্যানের সমর্থকদের মধ্যে বাগবিতণ্ডার ঘটনা ঘটে।

বিজ্ঞাপন

এ ঘটনায় অভিযোগের ভিত্তিতে পুলিশ ৫ জনকে আটক করে। আটককৃতরা হলেন- পরমেশ্বরদীর গ্রামের শারফিন, ময়েনদিয়া গ্রামের গিয়াসউদ্দিন, ময়েনদিয়া বেড়িবাঁধ এলাকার আতাহের, পাশের সালথা উপজেলার যদুনন্দী ইউনিয়নের খাড়দিয়া গ্রামের এনামুল শেখ এবং যদুনন্দী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান রফিকুল ইসলাম মোল্লার ছেলে রনি মোল্লা। এ ঘটনার জের ধরে রাত ১২টার দিকে মান্নান মাতুব্বরের সমর্থকরা সৈয়দ মাসুদের সমর্থকদের বাড়িঘর ভাঙচুর ও লুটপাট করে। এতে পরমেশ্বরদী ইউনিয়নের চরপাড়া, কাজীপাড়া ও চৌধুরীপাড়া গ্রামে অবস্থিত বহু বাড়িঘরে ভাঙচুর ও লুটপাটের ঘটনা ঘটে। এতে প্রায় ৫০ লাখ টাকার ক্ষতি হয়েছে বলে দাবি করা হয়েছে।  

খবর পেয়ে বোয়ালমারী থানা এবং ফরিদপুর থেকে অতিরিক্ত পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।  

পরমেশ্বরদী গ্রামের সৈয়দ মাসুদের অনুসারী ৩ নম্বর ওয়ার্ড কৃষকলীগের সহ-সভাপতি জিল্লু মোল্লা বলেন, চেয়ারম্যান মান্নান মাতুব্বরের অনুগত জলিল মোল্লার নেতৃত্বে মান্নান মোল্লা, চুন্নু কাজী, নজরুল কাজী, সোলাইমানসহ অজ্ঞাতরা আমাদের দলীয় লোকজনের বাড়িঘর ভাঙচুর ও লুটপাট করেছে। এমনকি গৃহপালিত পশু গরু, ছাগল, নগদ অর্থ, স্বর্ণালংকার লুটে নিয়েছে।  
এতে প্রায় ৫০ লাখ টাকার ক্ষতি হয়েছে।  

এদিকে, বক্তব্য জানতে পরমেশ্বরদী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আব্দুল মান্নান মাতুব্বরের ব্যক্তিগত মোবাইল নম্বরে একাধিকবার কল দেওয়া হলেও তিনি রিসিভ না করায় তার বক্তব্য জানা সম্ভব হয়নি।  

অপরদিকে, পরমেশ্বরদী গ্রামের সৈয়দ মাসুদ ঢাকায় অবস্থান করায় তিনি মোবাইল ফোনে জানান, ২০২১ সালের ২৩ জুলাই পরমেশ্বরদী গ্রামের শহীদুল ফকির ওরফে শহীদ হত্যা মামলায় চেয়ারম্যান আ. মান্নান মাতুবরের নামে চার্জশিট হওয়ায় ক্ষুব্ধ হয়ে ওই মামলার সাক্ষী এনায়েত শেখের বাড়িসহ বহু বাড়িতে হামলা করে ভাঙচুর ও লুটপাট চালায়।  

বোয়ালমারী থানা পরিদর্শক (তদন্ত মো. সালাহউদ্দিন বলেন, বুধবার সারা রাত মধুখালী সার্কেলের সহকারী পুলিশ সুপার সুমন কর ও আমিসহ ফরিদপুর থেকে অতিরিক্ত পুলিশ আজ বৃহস্পতিবার দুপুর পর্যন্ত ঘটনাস্থলে ছিলাম। পরিস্থিতি এখন নিয়ন্ত্রণে এবং এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন রয়েছে।  



সাতদিনের সেরা