kalerkantho

বুধবার । ২৯ জুন ২০২২ । ১৫ আষাঢ় ১৪২৯ । ২৮ জিলকদ ১৪৪৩

আশুলিয়ায় রাতের আঁধারে সরকারি গাছ চুরি করলেন সাবেক মেম্বার

সাভার সংবাদদাতা   

৪ এপ্রিল, ২০২২ ১৫:১৪ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



আশুলিয়ায় রাতের আঁধারে সরকারি গাছ চুরি করলেন সাবেক মেম্বার

সাভারের আশুলিয়ায় রাতের আঁধারে একটি আঞ্চলিক সড়কের সরকারি গাছ কাটার অভিযোগ উঠেছে সাবেক মেম্বার আব্দুর রশিদের বিরুদ্ধে। এসময় কাটা গাছের অংশবিশেষ জব্দ করেছে গ্রাম পুলিশ।  

আজ সোমবার (৪ এপ্রিল) দুপুরে রাতের আঁধারে গাছ কাটার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন শিমুলিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান এবিএম আজাহারুল ইসলাম সুরুজ। এর আগে গত রাতে ধামরাই-কালিয়াকৈর সড়কের আশুলিয়ার নৈহাটি এলাকায় গাছ কেটে নেওয়ার সময় হাতেনাতে কাটা গাছগুলো জব্দ করা হয়।

বিজ্ঞাপন

শিমুলিয়া ইউনিয়ন পরিষদের দফাদার হযরত আলী বলেন, রাত সাড়ে ১০টার দিকে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জানতে পারি সড়কের পাশের সরকারি গাছ কেটে নিয়ে যাচ্ছেন শিমুলিয়া ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক ৪নং ওয়ার্ডের সদস্য আব্দুর রশিদ। সঙ্গে সঙ্গে ঘটনাস্থলে গিয়ে আব্দুর রশিদের উপস্থিততে গাছ কাটার দৃশ্য দেখতে পাই। পরে ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান এবিএম আজাহারুল ইসলাম সুরুজকে বিষয়টি জানাই। এসময় ওই ওয়ার্ডের বর্তমান সদস্য  ঘটনাস্থলে আসলে চেয়ারম্যানের নির্দেশে কাটা গাছ গুলো জব্দ করা হয়। তবে সটকে পড়েন সাবেক ইউপি সদস্য আব্দুর রশিদ।

শিমুলিয়া ইউনিয়ন পরিষদের ৪ নং ওয়ার্ডের বর্তমান  সদস্য আব্বাস আলী জানান, খবর পেয়ে আমরা ঘটনাস্থলে গিয়ে গাছ গুলো জব্দ করেছি।

শিমুলিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান এবিএম আজাহারুল ইসলাম সুরুজ জানান, রাতের আঁধারে ওই এলাকার সাবেক মেম্বার রশিদ ও পোষ্ট মাষ্টার আব্দুর রহমান সড়কের সরকারি গাছ কেটে বিক্রি করছিলেন। খবর পেয়ে গাছগুলো জব্দ করে গ্রাম পুলিশের জিম্মায় রাখা হয়েছে। একই সঙ্গে বিষয়টি উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে অবহিত করেছি। এর আগেও তারা সরকারি গাছ বিক্রি করেছে। কিন্তু প্রমাণসহ ধরতে পারেনি। বিষয়টি উপজেলা নির্বাহী অফিসারকে জানানো হবে। তার পরামর্শে পরবর্তী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।  

এ ব্যাপারে আব্দুর রশিদের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, গাছগুলো পোস্টমাস্টার আব্দুর রহমানের কাছ থেকে তিনি কিনেছেন। তবে যোগাযোগ করা হলে পোস্টমাস্টার আব্দুর রহমানকে পাওয়া যায়নি।

শুধু রাতের আঁধারে সরকারি গাছ কেটে বিক্রি নয়, এই পোষ্ট মাষ্টার নৈহাটি বাজারের আরএস রেকর্ডীয় রাস্তা বন্ধ করে দোকান ঘর নির্মাণ করেছেন বলেও অভিযোগ রয়েছে। এছাড়া সদ্য রোপণ করা গাছ তুলে পাশের জলাশয়ে ফেলে দিয়েছেন আব্দুর রহমানের ভাতিজা সোলাইমান।



সাতদিনের সেরা