kalerkantho

মঙ্গলবার ।  ১৭ মে ২০২২ । ৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯ । ১৫ শাওয়াল ১৪৪৩  

শেবাচিম

পুলিশের মারধরে ব্রাদার আহত, তিন ট্যুরিস্ট পুলিশ প্রত্যাহার

বরিশাল অফিস   

১১ মার্চ, ২০২২ ০১:০৫ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



পুলিশের মারধরে ব্রাদার আহত, তিন ট্যুরিস্ট পুলিশ প্রত্যাহার

বরিশাল শের ই বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের জরুরী বিভাগে ঢুকে সিনিয়র স্টাফ নার্স সাইফুল ইসলামের উপর হামলার ঘটনায় ট্যুরিস্ট পুলিশের পরিদর্শকসহ তিনজনকে প্রত্যাহার করা হয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার বিকেলে তাদের বরিশাল রিজিওন থেকে প্রত্যাহার করে ট্যুরিস্ট পুলিশের সদরদপ্তরে সংযুক্ত করা হয়েছে।  

রাতে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ট্যুরিস্ট পুলিশ বরিশাল রিজিওন এর পুলিশ সুপার রেজাউল করিম। হাসপাতালের সিসিটিভি ফুটেজ ও ভুক্তোভোগি এবং প্রত্যক্ষদর্শীদের বর্ননা মতে প্রত্যাহার  হওয়া তিন পুলিশ সদস্য হামলা ঘটনায় জড়িত থাকার প্রমান পাওয়ায় তাদের বিরুদ্ধে এ ব্যবস্থা নেওয়া হয়।

বিজ্ঞাপন

 

তারা হলেন, ট্যুরিস্ট পুলিশ বরিশাল জোনের ইন্সপেক্টর বুলবুল আহমেদ, কনস্টেবল জাভেদ ও মেহেদী।

বরিশাল রিজিওন এর পুলিশ সুপার রেজাউল করিম কালের কণ্ঠকে বলেন, সিনিয়র নার্সের উপরে হামলা ঘটনায় ওই তিনজনের সম্পৃক্ততা পাওয়ায় তাদের বরিশাল থেকে প্রত্যাহার করে সদর দপ্তরে সংযুক্ত করা হয়েছে। পাশাপাশি তাদের বিরুদ্ধে একটি প্রতিবেদন জমা দেওয়া হয়েছে। এতে অভিযুক্ত তিন সদস্যর বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করার সুপারিশ করা হয়েছে।

অভিযুক্ত তিন ট্যুরিস্ট পুলিশ সদস্যকে প্রত্যাহারের ঘটনায় ঘটনায় সন্তুষ্ঠি প্রকাশ করেছেন শেবাচিম হাসপাতালের স্বাধীনতা নার্সেস পরিষদ। সংগঠনের সভাপতি মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, সাইফুলের উপর হামলাকারীদের সনাক্ত করে দ্রুত সময়ে মধ্যে স্ট্যান্ড রিলিজ করায় আমরা সঠিক বিচার পাওয়ার প্রত্যাশা করছি। পরবর্তীতে ওই তিনজনের বিরুদ্ধে বিচার বিভাগীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করবে বলে আশা করি।  

আমাদের যে আশ্বাস দিয়েছিলেন সেই অনুযায়ী ব্যবস্থা গ্রহন শুরু করেছেন। তাই ট্যুরিস্ট পুলিশ বরিশাল রিজিওন এর পুলিশ সুপার রেজাউল করিম স্যারের প্রতি হাসপাতালে নার্সরা কৃতজ্ঞ।

উল্লেখ্য, গত বুধবার রাতে ট্যুরিস্ট পুলিশের পরিদর্শক সড়ক দুর্ঘটনায় আহত হলে তাকে বরিশাল শের ই বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়। এসময় রোগীর নাম জিজ্ঞাসা করা নিয়ে জরুরী বিভাগে দায়িত্বরত সিনিয়র স্টাফ নার্স সাইফুল ইসলামের সাথে বাকবিতান্ডার এক পর্যায়ে ট্যুরিস্ট পুলিশের পরিদর্শক বুলবুলসহ তিনজনে মিলে নার্স সাইফুল ইসলামকে পিটিয়ে আহত করে। এ ঘটনার  প্রতিবাদে গতকাল বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ৯টা থেকে দুপুর সাড়ে ১১টা প্রযর্ন্ত হাসপাতালের নার্সরা দুই ঘন্টা কর্মবিরতি করলে প্রশাসনের আশ্বাসে তারা কাজে ফিরে যান। এবং দৃশ্যমান শাস্তির ব্যবস্থা গ্রহণ না করলে আগামী রবিবার থেকে কঠোর কর্মসূচি গ্রহণের হুশিয়ারী দেন স্বাধীনতা নাসের্স পরিষদের নেতৃবৃদ্ধ।



সাতদিনের সেরা