kalerkantho

মঙ্গলবার ।  ১৭ মে ২০২২ । ৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯ । ১৫ শাওয়াল ১৪৪৩  

মা চান ছেলের ১ বছরের সাজা, স্ত্রীদের দাবি ৬ মাস!

বিরামপুর (দিনাজপুর) প্রতিনিধি   

২৮ ফেব্রুয়ারি, ২০২২ ১৫:৫৬ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



মা চান ছেলের ১ বছরের সাজা, স্ত্রীদের দাবি ৬ মাস!

রানা দিনাজপুরের বিরামপুর উপজেলার পৌর শহরের কলাবাগান এলাকার হাফিজ উদ্দিনের ছেলে। গতকাল (রবিবার) সন্ধ্যায় উপজেলা প্রাণিসম্পদ অফিসে ঢুকে পড়েন মাদকের টাকা জোগাড় করতে। সেখানে গিয়ে পুলিশের হাতে ধরা পড়েন তিনি।  ঠিক একই সময় নিজ ঘরে বসে মাদক সেবন করছিলেন বুলেট বাবু।

বিজ্ঞাপন

তিনি পূর্ব জগন্নাথপুর এলাকার বছির উদ্দিনের ছেলে। মাদকসহ তাঁকেও আটক করে পুলিশ।

পরে তাঁদের তোলা হয় উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট (ইএনও) পরিমল কুমার সরকারের ভ্রাম্যমাণ আদালতে। সেখানে উপস্থিত হন উভয় অভিযুক্তের মা এবং স্ত্রী। আদালতে মায়েরা তাঁদের সন্তানদের এক বছরের সাজা দাবি করেন। অন্যদিকে স্ত্রীরা ছয় মাসের কারাদণ্ড চান। তাঁদের বক্তব্যের পর ম্যাজিস্ট্রেট রানাকে তিন মাস এবং বাবুকে দুই মাসের কারাদণ্ড প্রদান করেন।

শাস্তিপ্রাপ্তদের পরিবার জানায়, তাঁরা নিয়মিত নিজ ঘরে বসে মাদক সেবন করতেন। মাদক সেবনের দায়ে তাঁরা বেশ কয়েকবার জেল খেটেছেন।

পুলিশ জানায়, রবিবার সন্ধ্যায় নেশার টাকা জোগাড় করতে উপজেলা প্রাণিসম্পদ কার্যালয়ে ঢোকেন রানা। পরে অফিসের লোকজন তাঁকে আটক করে পুলিশকে খবর দেয়। অন্যদিকে বুলেট বাবু নিজ ঘরে বসেই মাদক সেবন  করার সময় পুলিশের হাতে আটক হন।

ইউএনও পরিমল কুমার বলেন, 'ভ্রাম্যমাণ আদালতে ওই দুই যুবকের মায়েরা কমপক্ষে এক বছরের এবং তাঁদের স্ত্রীরা ছয় মাসের সাজা দাবি করেন। পরে তাঁদের তিন ও দুই মাসের সাজা প্রদান করা হয়। '



সাতদিনের সেরা