kalerkantho

মঙ্গলবার ।  ১৭ মে ২০২২ । ৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯ । ১৫ শাওয়াল ১৪৪৩  

টিভিতে ক্রিকেট খেলা দেখে আর বাড়ি ফিরলেন না নাঈম

জেলা সংবাদদাতা ও আঞ্চলিক প্রতিনিথি, পিরোজপুর   

১৯ ফেব্রুয়ারি, ২০২২ ১৯:১১ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



টিভিতে ক্রিকেট খেলা দেখে আর বাড়ি ফিরলেন না নাঈম

পিরোজপুরের ভাণ্ডারিয়া উপজেলার পূর্ব পশারীবুনিয়া গ্রামে নাঈম বেপারী (২৬) নামের এক যুবকের মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। শনিবার সকাল ১০টায় উপজেলার ধাওয়া ইউনিয়নের পশারীবুনিয়া গ্রামের কৃষিজমির ভেতর একটি ঝোপের পাশ থেকে তাঁর মরদেহ উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনায় পুলিশ একই গ্রামের রিফাত হোসেনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করেছে।

থানা ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, পশারীবুনিয়া গ্রামের বাজারে শুক্রবার দিবাগত রাতে টিভিতে ক্রিকেট খেলা দেখে নাঈম একই গ্রামের রিফাতের সঙ্গে বাড়ির উদ্দেশে রওনা হন।

বিজ্ঞাপন

কিন্তু রাতে তিনি আর বাড়ি ফেরেননি।

শনিবার সকালে বাড়ি থেকে ৫০০ গজ দূরে একটি কৃষিজমির মাঠের ঝোপের পাশে তাঁর মরদেহ পড়ে থাকতে দেখে গ্রামবাসী। এরপর তারা নাঈমের বাড়িতে খবর দেয়। নিহত ওই যুবকের মা মুকুল বেগম ঘটনাস্থলে গিয়ে ছেলেকে শনাক্ত করেন।

পুলিশ মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য পিরোজপুর জেলা হাসপাতাল মর্গে পাঠায়।

নিহত নাঈম বেপারী উপজেলার পশারীবুনিয়া গ্রামের রুহুল আমিন বেপারীর ছেলে। তিনি ওই গ্রামের বাজারে ইলেকট্রনিকস মালামালের ব্যবসায়ী ছিলেন।

নিহত নাঈমের স্ত্রী নাবিলা আক্তার স্বামী হত্যার বিচার দাবি করে বলেন, 'আমার স্বামী শুক্রবার রাত সাড়ে ১১টার দিকে আমাকে মুঠোফোনে জানান, তাঁর বড় ভাই রাজু বেপারীর মাইকের দোকান হয়ে বাড়িতে ফিরবেন। এরপর আর বাড়ি ফেরেননি। সকালে (শনিবার) মাঠে তাঁর মরদেহ পাওয়া গেল। '

পিরোজপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (মঠবাড়িয়া-ভাণ্ডারিয়া সার্কেল) মোহাম্মদ ইব্রাহিম ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে বলেন,  'নিহত যুবকের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। তবে এখন পর্যন্ত তাঁর মৃত্যুর কোনো কারণ জানা যায়নি। '

ভাণ্ডারিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. মাসুমুর রহমান বলেন, 'গ্রামবাসীর কাছ থেকে খবর পেয়ে মরদেহ উদ্ধার করে পিরোজপুর হাসপাতালে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য একজনকে আটক করা হয়েছে। নিহত ওই যুবকের মৃত্যুর রহস্য উদঘাটন করে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে। '



সাতদিনের সেরা