kalerkantho

মঙ্গলবার ।  ১৭ মে ২০২২ । ৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯ । ১৫ শাওয়াল ১৪৪৩  

সরস্বতীকে নিয়ে দুশ্চিন্তা!

রাজবাড়ী প্রতিনিধি   

২৯ জানুয়ারি, ২০২২ ১৮:৫৪ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



সরস্বতীকে নিয়ে দুশ্চিন্তা!

বিদ্যার দেবী সরস্বতী। যা সনাতন ধর্মাবলম্বীদের অন্যতম ধর্মীয় উৎসব। আগামী ৫ ফেব্রুয়ারি এ পূজা অনুষ্ঠিত হবে। তবে করোনার বিস্তারে ফের বন্ধ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান।

বিজ্ঞাপন

ফলে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানসহ পাড়া-মহল্লার মণ্ডপগুলোতে অধিকসংখ্যক ভক্তের জমায়েতে এ দেবীর পূজা এবার না হবার সম্ভব দেখা দিয়েছে। এতে দুশ্চিন্তায় রাজবাড়ীর সরস্বতী দেবী তৈরির কারিগররা।

পূজাকে সামনে রেখে রাজবাড়ী জেলা শহরের হরিজনপল্লী, হরিসভাসহ জেলার বিভিন্ন স্থানে ব্যস্ত সময় পার করছেন প্রতিমা তৈরির কারিগররা। কেউ কেউ এর মধ্যে প্রতিমা তৈরির কাজ শেষ করেছেন। এখন বাকি রঙের কাজ।

শিক্ষার্থী পার্থ কুন্ডু, জয়া সরকার, মিনতি রানী বলেন, তাদের বিদ্যার দেবী সরস্বতী। দেবীর আশীর্বাদে তারা জ্ঞান অর্জন করেন। প্রতিবছর স্কুল-কলেজ, মণ্ডপ, পাড়া-মহল্লা, বাসাবাড়িতে এ পূজা হয়। কিন্তু এ বছর করোনার কারণে স্কুল-কলেজ বন্ধ থাকায় হয়তো পূজা করতে পারবেন না। তারপরও তারা চান প্রতিবছরের মতো এবারও পূজা হোক।  

প্রতিমা তৈরির কারিগর বাবলু বিশ্বাস জানান, প্রায় ২৫ বছর ধরে তিনি প্রতিমা তৈরির কাজ করছেন এবং এ কাজ করেই সংসার চালান। সরস্বতী পূজা উপলক্ষে প্রতিবছর শতাধিক প্রতিমা তৈরি করতেন। যা সময়ের আগেই বিক্রি হয়ে যেত। তবে এ বছর মাত্র ৮২টি তৈরি করেও বিক্রি করতে পারছেন না। শনিবার পর্যন্ত বিক্রি করেছেন ৩২টি। তা ছাড়া, অনেকে অর্ডার করে আবার না করে দিয়েছে। করোনায় স্কুল-কলেজ বন্ধ, পাড়া-মহল্লায় আয়োজন নেই। ফলে প্রতিমা বিক্রি নিয়ে চিন্তায় আছেন।  

তিনি আরো বলেন, প্রতিমা তৈরিতে ব্যয় বেড়েছে। তিনি গত দুই মাস ধরে তিনজন কারিগর নিয়ে ৮২টি প্রতিমা তৈরি করেছেন। এখন তা বিক্রি না হলে আর্থিক ক্ষতির সম্মুখীন হবেন।



সাতদিনের সেরা