kalerkantho

শুক্রবার ।  ২০ মে ২০২২ । ৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯ । ১৮ শাওয়াল ১৪৪৩  

নৌ-পরিবহন প্রতিমন্ত্রী বললেন

'প্রতিটি ধর্মের লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য একটাই- মানবকল্যাণ'

দিনাজপুর প্রতিনিধি   

২৭ জানুয়ারি, ২০২২ ২০:১২ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



'প্রতিটি ধর্মের লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য একটাই- মানবকল্যাণ'

নৌ-পরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী বলেছেন, প্রতিটি ধর্মের লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য একটাই- মানববকল্যাণ। প্রত্যেক ধর্মেই মানবতার কথা বলা হয়েছে। কিন্তু আমরা তা নষ্ট করেছি। তাই বিভিন্ন সময় ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানে হামলার ঘটনা শোনা যায়।

বিজ্ঞাপন

ধর্ম কখনও সন্ত্রাসকে লালন করে না। ১৯৭১ সালে সকল ধর্মের মানুষের অংশগ্রহণে এ দেশ স্বাধীন হয়েছে।

তিনি বলেন, জিয়া, এরশাদ, খালেদার সরকার ধর্মকে ব্যবহার করেছে। কিন্তু কোনো ধর্মীয় কাজ করেনি। তাই তখন দেশের মানুষের কোনো উন্নয়ন হয়নি। হয়েছিল যারা ক্ষমতা দখল করে ছিল, তাদের। তিনি বলেন, কোনো দেশে রাষ্ট্রীয় কোনো ধর্ম থাকতে পারে না। ধর্মনিরপেক্ষতা ও আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আছে বলেই বাংলাদেশ উন্নয়নে ভাসছে। মানুষ তাদের নিজ নিজ ধর্ম পালন করে যাচ্ছেন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশে আমূল পরিবর্তন হয়েছে।

স্বাস্থ্যবিধি মেনে বৃহস্পতিবার (২৭ জানুয়ারি, ২০২২) দিনাজপুরের কাহারোল উপজেলার শ্রী নিগমানন্দ সারস্বত সেবাশ্রমের আয়োজনে সার্বভৌম ভক্ত সম্মিলনী ও ৬৩তম বার্ষিক অধিবেশনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন দিনাজপুর-১ আসনের সংসদ সদস্য মনোরঞ্জন শীল গোপাল। তিনি বলেন, স্রষ্টার সাথে সৃষ্টির মিল করে দেওয়ার জন্য বিভিন্ন সময় বিভিন্ন রূপে মহাপুরুষ আবির্ভূত হয়েছেন। প্রতিটি ধর্মেই মানবকল্যাণের কথা বলা হয়েছে। তারপরও যারা ধর্মকে পুঁজি করে ব্যবসা করে, ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানে হামলা করে, তারা ধর্মকে বিশ্বাস করে না। এ দেশকে বিভাজিত করার জন্য একটি শ্রেণি সব সময় তৎপর থাকে। এরা সেই শক্তি যারা ৭১ এ পরাজিত হয়েছিল, যারা বাংলাদেশ চায়নি। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে সেই অপশক্তিকে রুখে দিতে হবে। মনে রাখতে হবে, এ দেশের সকল ধর্মের আস্থার প্রতীক শেখ হাসিনা।

অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মো. শরিফুল ইসলামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে সম্মানিত অতিথির বক্তব্য রাখেন কাহারোল উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মনিরুল হাসান, জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ফারুকুজ্জামান চৌধুরী মাইকেল, কাহারোল উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এ কে এম ফারুক, ৬ নম্বর রামচন্দ্রপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আতাউর রহমান বাবুল প্রমুখ। স্বাগত বক্তব্য রাখেন শ্রী নিগমানন্দ সারস্বত সেবাশ্রমের পরিচালক নন্দদুলাল চক্রবর্তী।

এর আগে তিন দিনব্যাপী আয়োজনের শেষ দিনে পুরো আশ্রম পরিদর্শন করেন প্রধান অতিথি নৌ-পরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী, বিশেষ অতিথি দিনাজপুর-১ আসনের সংসদ সদস্য মনোরঞ্জন শীল গোপালসহ সম্মানিত অতিথিবৃন্দ।

শ্রী নিগমানন্দ সারস্বত সেবাশ্রমের সার্বভৌম ভক্ত সম্মিলনী অনুষ্ঠানের শেষ দিনে স্বাস্থ্যবিধি মেনে বিপুলসংখ্যক ভক্ত উপস্থিত ছিলেন।



সাতদিনের সেরা