kalerkantho

বৃহস্পতিবার ।  ২৬ মে ২০২২ । ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯ । ২৪ শাওয়াল ১৪৪

অবশেষে সিরাজগঞ্জে আইনজীবীদের আন্দোলন প্রত্যাহার

সিরাজগঞ্জ সংবাদদাতা   

২৪ জানুয়ারি, ২০২২ ২০:১০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



অবশেষে সিরাজগঞ্জে আইনজীবীদের আন্দোলন প্রত্যাহার

দীর্ঘ ১১ দিন পর সিরাজগঞ্জে আইনজীবী এবং আদালত কর্মচারীদের মধ্যে সৃষ্ট সমস্যা সমাধা হয়েছে। সোমবার বিকেলে বিচারক ও আইনজীবীদের মধ্যে আয়োজিত সমঝোতা বৈঠকে ফলপ্রসূ আলোচনা হওয়ায় আদালত বর্জনের আন্দোলন প্রত্যাহার করে নিয়েছেন আইনজীবীরা। এ অবস্থায় আগামীকাল মঙ্গলবার থেকে আগের নিয়মে আদালত ও আইনজীবীদের কার্যক্রম চলবে।

জেলা আইনজীবী সমিতির সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট আব্দুর রউফ পান্না বলেন, আইনজীবী এবং আদালত কর্মচারীদের মধ্যে সৃষ্ট সমস্যা সমাধাকল্পে জেলা জজের কক্ষে সোমবার বিকেলে ঘণ্টাব্যাপী বিচারক, আইনজীবী ও কর্মচারীদের মধ্যে সমঝোতা বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়।

বিজ্ঞাপন

বৈঠকে ফলপ্রসূ আলোচনা হওয়ায় আইনজীবীদের আদালত বর্জন কর্মসূচি প্রত্যাহার করে নেওয়া হয়েছে।

বৈঠকের সিদ্বান্ত অনুযায়ী আইনজীবী ও আদালত কর্মচারীদের দায়ের করা পৃথক দুটি মামলা প্রত্যাহার করে নেয়া হবে এবং অভিযুক্ত স্টোনোগ্রাফার ইউসুফ আলীকে অন্যত্র বদলি করে দেওয়া হবে। এ অবস্থায় আগামীকাল মঙ্গলবার থেকে আগের নিয়মে আদালত ও আইনজীবীদের কার্যক্রম চলমান থাকবে।

সমঝোতা বৈঠকে জেলা ও দায়রা জজ, চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেটসহ উভয় আদালতের সকল বিচারক, আইনজীবী সমিতির সভাপতি, সাধারণ সম্পাদক, পিপি, জিপিসহ সিনিয়র আইনজীবী ও উভয় আদালতের কর্মচারীরা উপস্থিত ছিলেন।

গত ১৩ জানুয়ারি বৃহস্পতিবার জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের স্টেনোগ্রাফার ইউসুফ আলী আইনজীবী আবুল কালামের কাছে ঘুষ দাবি করায় আদালতপাড়ায় অপ্রীতিকর ঘটনার সূত্রপাত হয়। এরপর রবিবার আপত্তিকর ব্যানার নিয়ে আইনজীবীদের শাস্তির দাবীতে আদালত প্রাঙ্গণে সভা-সমাবেশ করেন জেলা জজ ও জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের কর্মচারীরা। এরপর অফিস ও এজলাস বন্ধ রেখে আপত্তিকর ব্যানার নিয়ে আন্দোলন করার অভিযোগ এনে জড়িতদের শাস্তির দাবিতে আদালত বর্জন শুরু করেন আইনজীবিরা। এ অবস্থায় মারপিটের অভিযোগ এনে থানায় আইনজীবী ও স্টোনোগ্রাফারের পক্ষ থেকে পৃথক দুটি মামলা করা হয়। এ অবস্থায় আদালত কর্মচারীদের শাস্তি ও অভিযুক্ত ইউসুফ আলীর গ্রেপ্তার দাবি করে আদালত বর্জন কর্মসূচি পালন করে আসছিলেন আইনজীবীরা।



সাতদিনের সেরা