kalerkantho

বুধবার ।  ২৫ মে ২০২২ । ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯ । ২৩ শাওয়াল ১৪৪৩  

আনন্দ পরিণত হলো শোকে

শরণখোলা (বাগেরহাট) প্রতিনিধি   

২৩ জানুয়ারি, ২০২২ ১৮:২১ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



আনন্দ পরিণত হলো শোকে

আড়াই বছরের তাহসানকে নিয়ে ভাইয়ের বউভাতের অনুষ্ঠানে গিয়েছিলেন মা সামছুন্নাহার তানিয়া। বাড়ির সবাই আনন্দ-ফুর্তিতে মেতে ছিল। বিয়েবাড়ির ব্যস্ততায় খেয়াল ছিল না কোলের শিশুটির কথা। কোন ফাঁকে পাশের নালায় পড়ে যায় শিশুটি।

বিজ্ঞাপন

হৈচৈ পড়ে যায় তাহসানকে না পেয়ে।

২০-২৫ মিনিটের ব্যবধানে তাকে নালা থেকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তরত চিকিৎসক শিশুটিকে মৃত ঘোষণা করেন। মুহূর্তেই বিয়েবাড়ির সেই আনন্দ পরিণত হয় শোকে।

মর্মান্তিক এই ঘটনাটি ঘটেছে রবিবার বিকেল ৪টার দিকে বাগেরহাটের শরণখোলার ধানসাগর ইউনিয়নের দক্ষিণ বাধাল-মালসা গ্রামে। নিহত তাহসান খোন্তাকাটা ইউনিয়নের জানেরপাড় গ্রামের আবু হানিফ সাজ্জালের ছেলে। ঘটনার পর থেকে শোকের ছায়া নেমে আসে বিয়েবাড়িতে।

শিশুটির চাচা স্কুলশিক্ষক মো. ইলিয়াস হোসেন জানান, তাহসানের মামা সগির হোসেন হাওলাদারের বউভাতের অনুষ্ঠান নিয়ে সবাই ব্যস্ত ছিলেন। অনুষ্ঠানের কোনো এক ফাঁকে সবার অজান্তে শিশুটি বাড়ির পাশের নালায় পড়ে যায়। সবাই খোঁজাখুঁজির পর নালা থেকে উদ্ধার করে তাহসানকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

শরণখোলা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. সাইদুর রহমান জানান, শিশুমৃত্যুর বিষয়টি খোঁজ নিয়ে আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।



সাতদিনের সেরা