kalerkantho

বুধবার ।  ২৫ মে ২০২২ । ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯ । ২৩ শাওয়াল ১৪৪৩  

বাবার লাশ দেখে ছেলের মৃত্যু

ফুলপুর (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি   

২৩ জানুয়ারি, ২০২২ ১৭:২৭ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বাবার লাশ দেখে ছেলের মৃত্যু

হঠাৎ অসুস্থ হয়ে পড়েন বাবা। তাকে উন্নত চিকিৎসা দিতে ময়মনসিংহ মেডিক্যালে পাঠালে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। লাশ নিয়ে বাড়ি ফেরে পরিবারের সদস্যরা। বাবার লাশ দেখে কাঁদতে কাঁদতে জ্ঞান হারিয়ে ফেলেন প্রবাসফেরত ছেলে।

বিজ্ঞাপন

তাকেও নেওয়া হয় হাসপাতালে। এবার ছেলেকেও মৃত ঘোষণা করেন চিকিৎসক।

ময়মনসিংহের ফুলপুরের রামভদ্রপুর ইউনিয়নের গাইরা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। মৃতরা হলেন- ওই গ্রামের আব্দুল জলিল (৬৫) এবং তাঁর ছেলে জুলমত হোসেন আকন্দ (২৮)। শনিবার দিবাগত রাতে তাদের দুজনকে মৃত ঘোষণা করেন চিকিৎসক।

জানা যায়, জুলমত সম্প্রতি দেশে ফিরেছেন। তার বিয়ের জন্যও কনেও ঠিক করেছিল পরিবার। শনিবার রাতে আ. জলিল ধর্মীয় অনুষ্ঠান শুনে বাড়ি ফিরে অসুস্থ হয়ে পড়েন। তাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে চিকিৎসকরা ময়মনসিংহ মেডিক্যালে পাঠান। সেখানে নেওয়ার পর কর্তব্যরত চিকিৎসক আব্দুল জলিলকে মৃত ঘোষণা করেন। তাঁর লাশ অ্যাম্বুলেন্সে করে বাড়ি ফেরেন পরিবারের সদস্যরা। বাড়ি ফিরে বাবার লাশ দেখে জুলমত হোসেন আকন্দ জ্ঞান হারান। পরিবারের সদস্যরা তাঁকে ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক জুলমতকেও মৃত ঘোষণা করেন।

২ নম্বর রামভদ্রপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. রুকনুজ্জামান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, আমি ঘটনাস্থলে গিয়েছিলাম। প্রবাসী ছেলের বিয়ের আয়োজনে যে বাড়ি আনন্দঘর পরিবেশ থাকার কথা ছিল এখন সেখানে শোকের মাতম। '



সাতদিনের সেরা