kalerkantho

শনিবার ।  ২১ মে ২০২২ । ৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯ । ১৯ শাওয়াল ১৪৪৩  

বিধি-নিষেধ অমান্য করে আওয়ামী লীগের সম্মেলন, পরে ভাঙচুর

শাজাহানপুর (বগুড়া) প্রতিনিধি   

২০ জানুয়ারি, ২০২২ ২১:২৩ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



বিধি-নিষেধ অমান্য করে আওয়ামী লীগের সম্মেলন, পরে ভাঙচুর

সারা দেশে করোনা ও ওমিক্রন দ্রুত ছড়িয়ে পড়ায় সরকারের দেওয়া বিধি-নিষেধ মানছেন না বগুড়ার শাজাহানপুরে সরকার দলীয় নেতাকর্মীরা। উপজেলার বিভিন্ন স্থানে খোলা জায়গায় সম্মেলনের নামে গণজমায়েত করছেন তারা। অপরদিকে পকেট কমিটির অভিযোগে তৃণমূল নেতাকর্মীদের মাঝে হট্টগোল এবং মঞ্চের চেয়ার ভাঙচুরের ঘটনা ঘটেছে।

অথচ বৃহস্পতিবার দুপুরে সরকারি বিধি-নিষেধের কারণে উপজেলার সকল সম্মেলন স্থগিত ঘোষণা করা হয়েছে বলে জানান উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক তালেবুল ইসলাম।

বিজ্ঞাপন

সম্মেলন স্থগিত ঘোষণা করে একই দিন (বৃহস্পতিবার) বিকেলে উপজেলার রানীরহাট স্কুল অ্যান্ড কলেজ মাঠে আশেকপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনের আয়োজন করা হয়। সম্মেলনে প্রধান অতিথি ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জেলা পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান এ কে এম আছাদুর রহমান দুলু। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক তালেবুল ইসলাম। সম্মেলনে শত শত নেতাকর্মীরা জমায়েত হন।

সম্মেলনের এক পর্যায়ে পকেট কমিটির অভিযোগে তৃণমূল নেতাকর্মীদের তোপের মুখে পড়েন উপজেলা নেতৃবৃন্দ। এক পর্যায়ে উত্তেজিত নেতাকর্মী সম্মেলন মঞ্চের চেয়ার ভাঙচুর করেন।

আশেকপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক জেলদার রহমান জানান, কয়েক দিন আগে সম্মেলনের তারিখ ঘোষণা করা হলেও সম্মেলনের দিন পর্যন্ত কাউন্সিলরদের তালিকা প্রকাশ করেননি বর্তমান কমিটির সভাপতি ও সাধারন সম্পাদক। আজ সম্মেলনের দিন (বৃহস্পতিবার) অভিযোগ দেয়ার পরও পকেট কমিটি করতে চাইলে তৃণমূল নেতাকর্মীরা ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠেন। একপর্যায়ে মঞ্চের চেয়ার ভাঙচুর করেন তৃণমূল নেতাকর্মীরা। পরে বাধ্য হয়ে সম্মেলন বন্ধ হয়ে যায়।

এ ছাড়া একই দিন দুপুরে উপজেলার আড়িয়া রহিমাবাদ উচ্চ বিদ্যালয়ের অডিটোরিয়ামে উপজেলা কৃষক লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। সেখানে প্রধান অতিথি বাংলাদেশ কৃষকলীগ কেন্দ্রিয় কমিটির সহসভাপতি আব্দুল লতিফ তারিনসহ জেলা ও উপজেলা পর্যায়ের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। সেখানেও সভাপতি মনোনীত করা নিয়ে নেতাকর্মীদের মাঝে হট্টগোল দেখা দেয়। একপর্যায়ে একপক্ষ সম্মেলন ত্যাগ করেন।

সরকারি বিধি-নিষেধ অমান্য করে গণজমায়েত করার কারণ জানতে চাইলে উপজেলার আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক তালেবুল ইসলাম জানান, পূর্বে তারিখ ঘোষণা করা ছিল তাই সম্মেলন সম্পন্ন করা হয়েছে। আগামীকাল (শুক্রবার) থেকে পুরোদমে সম্মেলন বন্ধ থাকবে।

বগুড়া জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক রাগেবুল আহসান রিপু জানান, সম্মেলন বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। তারপরও কেন যে করছে তা জানা নেই।

শাজাহানপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার আসিফ আহমেদ জানান, সরকারি বিধি-নিষেধ নিয়ে মাঠ পর্যায়ে কার্যক্রম চলমান রয়েছে। সবাইকে বিধি-নিষেধ মানতে বলা হয়েছে। আশেকপুর ইউপি চেয়ারম্যানকেও নিষেধ করা হয়েছে। তাছাড়া উপজেলার সকল ইউপি চেয়ারম্যানদের নিয়ে জরুরি বৈঠকের প্রস্তুতি চলছে। আগামীকাল (শুক্রবার) থেকে বিধি নিষেধ অমান্যকারীদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে।



সাতদিনের সেরা