kalerkantho

বুধবার । ১২ মাঘ ১৪২৮। ২৬ জানুয়ারি ২০২২। ২২ জমাদিউস সানি ১৪৪৩

ছাত্রলীগ নেতা শাহীন হত্যা মামলা: ৯ জনের ফাঁসি, ২২ জনের যাবজ্জীবন

নিজস্ব প্রতিবেদক, রাজশাহী   

৯ ডিসেম্বর, ২০২১ ১৩:২০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ছাত্রলীগ নেতা শাহীন হত্যা মামলা: ৯ জনের ফাঁসি, ২২ জনের যাবজ্জীবন

রাজশাহীর ছাত্রলীগ নেতা শাহিন আলম ওরফে শাহিন শাহ হত্যা মামলার রায় ঘোষণা করা হলো অবশেষে। রায়ে ৯ জনের ফাঁসি ও ২২ জনের যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের আদেশ দেওয়া হয়। আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে রাজশাহী মহানগর দায়রা জজ আদালে এ মামলার রায় ঘোষণা করা হয়। আদালতের বিচারক ওএইচএম ইলিয়াস হোসেন রায় ঘোষণা করেন।

বিজ্ঞাপন

আদালতের রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী মুসাব্বিরুল ইসলাম জানান, শাহীন শাহ হত্যা মামলায় ৯ জনের ফাঁসির রায় দেন আদালত। এছাড়াও ২২ জনের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে।  

মৃত্যুদণ্ডাদেশ প্রাপ্তরা হলেন মুনসুর রহমান, হাসানুজ্জামান হিমেল, তৌফিকুল ইসলাম, মহসীন, সাইরুল, রজব, বিপ্লব, মমিন ও  আরিফুল ইসলাম। এদের প্রত্যেককে এক লাখ টাকা করে অর্থদণ্ডে দণ্ডিত করা হয়েছে।

যাবজ্জীবন কারাদণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন মাহাবুল হোসেন, সাত্তার, সাজ্জাদ হোসেন, বখতিয়ার আলম রানা, হাসান আলী, মাসুদ, রাসেল, রাজা, মুতুর্জা, সুমন, আসাদুল, আক্তারুল, জইদুর রহমান, ফরমান আলী, জয়নাল আবেদীন, রাজু আহমেদ, আকবর আলী, সম্রাট হোসেন, লাল মোহাম্মদ, টিয়া আলম, আজাদ হোসেন ও মাসুম। এদের প্রত্যেককে ৫০ হাজার টাকা অর্থদণ্ড করা হয়েছে।

নিহত শাহিন শাহ রাজশাহী সিটি করপোরেশনের (রাসিক) প্যানেল মেয়র-২ ও এক নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর রজব আলীর ছোট ভাই। ২০১৩ সালের ২৮ আগস্ট দুপুরে প্রতিপক্ষের হামলায় নিহত হন তিনি। শাহেন শাহ রাজশাহী কোর্ট কলেজ ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ছিলেন। তাকে হত্যার ঘটনায় তার ভাই যুবলীগ নেতা নাহিদ আক্তার নাহান বাদী হয়ে পর দিন নগরীর রাজপাড়া থানায় মামলা করেন।

এ মামলায় সিটি করপোরেশনের তৎকালীন ১ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর মুনসুর রহমানসহ ৩১ জনের বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল হয়। গত বছরের ১১ নভেম্বর আদালতে এ মামলায় উভয়পক্ষের যুক্তিতর্ক উপস্থাপন শেষ হয়। এরপর ১০ ডিসেম্বর মামলার রায় ঘোষণার দিন ঠিক করা হয়। তারপর থেকে দফায় দফায় রায় ঘোষণার দিন পেছাচ্ছে। মামলার বাদীপক্ষ দ্রুত রায় ঘোষণার দাবি জানিয়েছেন।  



সাতদিনের সেরা