kalerkantho

রবিবার । ৯ মাঘ ১৪২৮। ২৩ জানুয়ারি ২০২২। ১৯ জমাদিউস সানি ১৪৪৩

রাজাকার পুত্রের হাতে নৌকার বৈঠা!

চাঁদপুর প্রতিনিধি   

৪ ডিসেম্বর, ২০২১ ১৬:২১ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



রাজাকার পুত্রের হাতে নৌকার বৈঠা!

চাঁদপুরে হাইমচরে ইউনিয়নে আওয়ামী লীগ থেকে রাজাকার পুত্রকে মনোনয়ন দেওয়া হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এর প্রতিবাদে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ করেছে স্থানীয় আওয়ামী লীগ, যুবলীগ ও ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা।

শনিবার (৪ ডিসেম্বর) দুপুরে হাইমচর ইউনিয়নের সাহেবগঞ্জ বাজারে ঘণ্টাব্যাপী বিক্ষোভ ও প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। এ সময় নেতাকর্মী নৌকা প্রতীকের জুলফিকার আলী জুলহাস সরকারের মনোনয়ন বাতিলের দাবি জানায়।

বিজ্ঞাপন

সমাবেশে হাইমচর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ ভারপ্রাপ্ত সভাপতি ছানাউল্লাহ সরকার, সাধারণ সম্পাদক ওসমান প্রধানিয়া, বাদশা গোলদার, ইউনিয়ন যুবলীগ সভাপতি সাইফুল ইসলাম দেওয়ান, সাধারণ সম্পাদক মনির হোসেন গাজীসহ আরো অনেকে বক্তব্য রাখেন।

বক্তারা বলেন, এই ইউনিয়নে পঞ্চম ধাপের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে। তবে চতুর্থ ধাপেই নৌকা প্রতীকের প্রার্থীর নাম ঘোষণা করা হয়। যাতে চিহ্নিত রাজাকার পরিবার এবং ৭১-এ শান্তি কমিটির চেয়ারম্যানের ছেলের হাতে নৌকা প্রতীক তুলে দেওয়া হয়। এটি কোনো অবস্থায় মেনে নেবে না দলের নেতাকর্মীরা। একই সঙ্গে দ্রুত সময়ে প্রার্থী পরিবর্তনের দাবি জানান তারা।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, মহান মুক্তিযুদ্ধের সময় জুলফিকার আলী জুলহাস সরকারের বাবা জলিল সরকার চিহ্নিত রাজাকার এবং তার চাচা হামিদ সরকার এলাকায় শান্তি কমিটির চেয়ারম্যান ছিলেন। দেশ স্বাধীন হওয়ার পর বীর মুক্তিযোদ্ধাদের হাতে তাদের মৃত্যু হয় বলে জানিয়েছে স্থানীয় মুক্তিযোদ্ধারা।

উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের কমান্ডার সন্তোষ কুমার মজুমদার বলেন, 'এই বিষয় জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদকে সঙ্গে নিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে প্রমাণপত্রসহ লিখিতভাবে প্রতিবাদ জানানো হয়েছে। '

প্রসঙ্গত, চতুর্থ ধাপে হাইমচরের চারটি ইউনিয়ন অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা থাকলেও শেষ পর্যন্ত তা পিছিয়ে আগামী ৫ জানুয়ারি নির্বাচনের তারিখ ঘোষণা করা হয়। এতে মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার শেষ দিন আগামী ৯ ডিসেম্বর। তবে এর আগেই ২৩ নভেম্বর হাইমচর ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগ থেকে নৌকা প্রতীক পান জুলফিকার আলী জুলহাস সরকার।



সাতদিনের সেরা