kalerkantho

শনিবার । ১৫ মাঘ ১৪২৮। ২৯ জানুয়ারি ২০২২। ২৫ জমাদিউস সানি ১৪৪৩

পা হারিয়ে আল-আমিনের মানবেতর জীবন, চান সহায়তা

ফুলপুর (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি   

২ ডিসেম্বর, ২০২১ ২১:২৮ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



পা হারিয়ে আল-আমিনের মানবেতর জীবন, চান সহায়তা

ঢাকায় সড়ক দুর্ঘটনায় পাঠাও চালক আল আমিনের ডান পা শরীর থেকে বিচ্ছিন্ন হয়েছে। পাঁচ সদস্যের পরিবারের একমাত্র উপার্জনকারী আল-আমিন এখন বিছানায় পড়ে আছেন। টাকার অভাবে বিনা চিকিৎসায় দিনদিন মৃত্যুর প্রহর শুনছেন। দরিদ্র পরিবারের সন্তান আল-আমিনের জন্য স্ত্রী শাপলা খাতুন প্রধানমন্ত্রীর সহায়তা চেয়েছেন।

বিজ্ঞাপন

পরিবার সূত্রে জানা যায়, ময়মনসিংহ সিটি করপোরেশনের ৩১নম্বর চরগোবিন্দপুর ওয়ার্ডের মোবারক হোসেনের ছেলে আল-আমিন। স্ত্রী শাপলা ঢাকায় গার্মেন্টে চাকরি করতেন। তিনি ঢাকায় পাঠাও চালক সংগঠনে ভাড়ায় মোটরসাইকেল চালাতেন। গত ১২ আগস্ট বিকেলে গাজীপুরের বড়বাড়ি নামক স্থানে পেছন দিক থেকে একটি যাত্রীবাহী বাস তার মোটরসাইকেলটিকে ধাক্কা দিলে তিনি রাস্তায় পড়ে যান। এ সময় তার ডান পায়ের ওপর দিয়ে বাসের চাকা চলে যায়। স্থানীয়রা তাকে একটি ক্লিনিকে ভর্তি করেন। অবস্থার অবনতি হওয়া তাকে ঢাকা পঙ্গু হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। হাসপাতালের বিশেষজ্ঞ দল ডান পা না কাটার জন্য অনেক চেষ্টা করেও ব্যর্থ হন। অবশেষে দেহ থেকে ডান পা বিচ্ছিন্ন  করা হয়।

আল-আমীনের স্ত্রী শাপলা খাতুন জানান, বর্তমানে কোনো উপার্জনকারী নেই এ সংসারে। স্বামীর আয়ে চলতো পুরো পরিবার। স্বামীর ব্যয়বহুল অপারেশন ও কৃত্তিম পা সংযোজন করতে প্রয়োজনীয় অর্থের প্রয়োজন। সহায়-সম্বলহীন পরিবারের পক্ষে তার সুচিকিৎসা হচ্ছে না। পঙ্গু স্বামীর চিকিৎসার জন্য প্রধানমন্ত্রী ও সমাজের সকল সহৃদয় মানুষের সহায়তা কামনা করছেন শাপলা খাতুন। সাহায্য পাঠানোর  ঠিকানা : বিকাশ ০১৬৩১৩০১৭১৪ (আল-আমিন)।  



সাতদিনের সেরা