kalerkantho

শনিবার । ১৫ মাঘ ১৪২৮। ২৯ জানুয়ারি ২০২২। ২৫ জমাদিউস সানি ১৪৪৩

দেওয়ানগঞ্জে বালু উত্তোলন বন্ধে অভিযান, ৩ ড্রেজারে আগুন

অনলাইন ডেস্ক   

৩০ নভেম্বর, ২০২১ ১১:১০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



দেওয়ানগঞ্জে বালু উত্তোলন বন্ধে অভিযান, ৩ ড্রেজারে আগুন

দেওয়ানগঞ্জ উপজেলার হাতিভাঙ্গা ইউনিয়নের অন্তর্গত সবুজপুর গ্রামের জিঞ্জিরাম নদীতে অবৈধভাবে বালু উত্তোলন বন্ধে মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করা হয়। বালুমহাল ও মাটি ব্যবস্থাপনা আইন ২০১০ ধারায় মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করে ৩টি ড্রেজারে আগুন এবং বিপুল পরিমাণ পাইপ ভেঙে গুঁড়িয়ে বিনষ্ট করা হয়। গতকাল ২৯ নভেম্বর বিকেল ৪টার দিকে সহকারী কমিশনার ভূমি ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট অহনা জিন্নাতের নেতৃত্বে এ অভিযান পরিচালিত হয়।  

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, দীর্ঘদিন ধরে উত্তরাঞ্চলের ৫টি ইউনিয়নের বিভিন্ন স্থানে বালু উত্তোলন করে আসছিল অনেকগুলো চক্র।

বিজ্ঞাপন

কোথাও নদীতে আবার কোথাও ফসলি জমি, মূল সড়কের পাড় ঘেঁষে চলছিল বালু উত্তোলন। এ নিয়ে অনেক ভুক্তভোগী প্রায় প্রতিদিন অভিযোগ করে আসছিলেন। যার ফলে প্রশাসন নড়েচড়ে বসে। উপজেলা প্রশাসনের কঠোর অভিযানে বালু উত্তোলন অনেকাংশে বন্ধ হয়েছে।  

বেশ কয়েকজন বালু উত্তোলনকারীর সূত্রে জানা গেছে, খারাপ সময় পার করছেন তারা। আপাতত ব্যবসা করতে পারছেন না। তাদের ভাষ্য মতে, বর্তমান অভিযান তাদের ঘাবড়ে দিয়েছে। কখনো উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা, আবার কখনো এসিল্যান্ডের সাঁড়াশি অভিযানে তারা আর বালু উত্তোলন করতে সাহস পাচ্ছেন না, বন্ধ রেখেছেন সব কিছু। তার পরও প্রশাসনের চোখ ফাঁকি দিয়ে কিছু স্থানে বালু উত্তোলন করছিলেন দু-একজন। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে আজ ৩টি ড্রেজারে আগুন লাগিয়ে দেওয়া হয়। প্রায় দুই কিলোমিটার বিস্তৃত পাঁচ শতাধিক পাইপ ভেঙে গুঁড়িয়ে বিনষ্ট করা হয়।  

দেওয়ানগঞ্জের সহকারী কমিশনার ভূমি অহনা জিন্নাত জানান, সরকারি সম্পত্তি রক্ষায় জনস্বার্থে এ অভিযান অব্যাহত থাকবে। আমরা নিয়মিত অভিযান করছি। তাদের এসব কাজ করতে দেওয়া হবে না।  



সাতদিনের সেরা