kalerkantho

শুক্রবার । ১৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৮। ৩ ডিসেম্বর ২০২১। ২৭ রবিউস সানি ১৪৪৩

বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে কটূক্তি, মেয়র আব্বাসের বিরুদ্ধে মামলা

গ্রেপ্তারের দাবিতে বিক্ষোভ

নিজস্ব প্রতিবেদক, রাজশাহী   

২৪ নভেম্বর, ২০২১ ১৫:২১ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে কটূক্তি, মেয়র আব্বাসের বিরুদ্ধে মামলা

পৌর মেয়র আব্বাসের বিরুদ্ধে মামলার পর তাকে গ্রেপ্তারের দাবিতে বিক্ষোভ করেছে স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীরা।

বঙ্গবন্ধুর ম্যুরাল নিয়ে নিয়ে কটূক্তিকারী আওয়ামী লীগ নেতা ও রাজশাহীর কাটাখালি পৌরসভার মেয়র আব্বাস আলীর বিরুদ্ধে ডিজিটাল সিকিউরিটি আইনে মামলা দায়ের করা হয়েছে। নগরীর বোয়ালিয়া থানায় এ মামলাটি করেছেন ১৩ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর আব্দুল মোমিন।

এ ছাড়াও মেয়র আব্বাসকে গ্রেপ্তারের ও দল থেকে বহিষ্কারের দাবিতে বুধবার (২৪ নভেম্বর) সকাল থেকে রাজশাহীতে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ মিছিল করা হয়েছে। দল থেকে স্থায়ী বহিষ্কারের দাবিতে উত্তাল রাজশাহী।

সকালে রাজশাহী মহানগরীর সাহেববাজার জিরোপয়েন্টে মানববন্ধন করেছে বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সংসদ রাজশাহী জেলা ও মহানগর ইউনিট। মুক্তিযোদ্ধাদের এই মানববন্ধনে একতত্বা প্রকাশ করে বিভিন্ন সামাজিক  সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

এ সময় মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, একজন পৌর মেয়র জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে নিয়ে এমন মন্তব্য করার সাহস কিভাবে পায়। তার পেছনে কারা মদদদাতা রয়েছে তাঁদের খুঁজে বের করার দাবি জানানো হয়। এ সময় পৌর মেয়র আব্বাসকে গ্রেপ্তারের দাবি জানান মুক্তিযোদ্ধারা। মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন মুক্তিযোদ্ধা সংসদের মহানগর শাখার সাবেক কমান্ডার মুক্তিযোদ্ধা ডা. আবদুল মান্নান, রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ডাবলু সরকার, সাংগঠনিক সম্পাদক মীর ইশতিয়াক আহমেদ লিমন, কবিকুঞ্জের সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা অধ্যাপক রুহুল আমিন প্রামানিকসহ বিভিন্ন সামাজিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

অন্যদিকে দুপুর ১২টায় পৌর মেয়র আব্বাস আলীকে দল থেকে স্থায়ী বহিষ্কার ও গ্রেপ্তারের দাবি জানিয়ে বিক্ষোভ করেছেন রাজশাহী কাটাখালি পৌরসভা আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা।

প্রবীণ আওয়ামী লীগ নেতা মোতাহার আলী, সাবেক ছাত্রলীগ নেতা বোরহান উদ্দিন রাব্বানী, ওয়ার্ড কাউন্সিলর মঞ্জুর রহমান, ফরিদুল ইসলাম রাজু প্রমুখ। এ সময় মেয়র আব্বাসের বিরুদ্ধে স্কুল দখল, কাটাখালি বাজারের টাকা আত্মসাত, ভূমি দখল, রাতারাতি কোটিপতি বনে যাওয়াসহ বিভিন্ন অভিযোগ তোলা হয়।

মামলা দায়েরের বিষয়টি নিশ্চিত করে নগরীর বোয়ালিয়া থানার ওসি নিবারণ চন্দ্র বর্মণ বলেন,  'মেয়র আব্বাসের বিরুদ্ধে ডিজিটাল আইনে মামলা দায়ের করা হয়েছে। ওই মামলায় তাঁকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে। তবে তিনি পলাতক রয়েছেন।’



সাতদিনের সেরা