kalerkantho

মঙ্গলবার । ১৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৮। ৩০ নভেম্বর ২০২১। ২৪ রবিউস সানি ১৪৪৩

বৈদ্যুতিক শক দিয়ে স্ত্রীকে হত্যা; স্বামীর ফাঁসির আদেশ

ফেনী প্রতিনিধি   

২১ নভেম্বর, ২০২১ ১৭:২০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বৈদ্যুতিক শক দিয়ে স্ত্রীকে হত্যা; স্বামীর ফাঁসির আদেশ

ফেনীর আলোচিত ফাজিলপুরে অন্তঃসত্বা গৃহবধূকে বৈদ্যুতিক শক দিয়ে হত্যা মামলায় স্বামী মো. এয়াছিনের ফাঁসির আদেশ দিয়েছেন আদালত। রবিবার ফেনী জেলা ও দায়রা জজ ড. বেগম জেবুন্নেছার আদালতে আসামির উপস্থিতিতে এ রায় ঘোষণা করেন। রায়ে আসামিকে মৃত্যুদণ্ডর সঙ্গে ৫০ হাজার টাকা অর্থদণ্ড করা হয়েছে।

দণ্ডপ্রাপ্ত এয়াছিন ফেনী সদর উপজেলার ফাজিলপুর ইউনিয়নের দক্ষিণ শিবপুর গ্রামের আহসান উল্লাহর ছেলে। স্ত্রী একই এলাকার মোস্তফার মেয়ে শিরিন আক্তারকে হত্যা মামলায় তাকে মৃত্যুদণ্ড দেওয়া হয়েছে।

আদালত সূত্রে জানা যায়, বিয়ের পর পারিবারিক কলহের জের ধরে সংসারে সব সময় বিবাদ লেগেই থাকত। ২০১৯ সালের ৫ মার্চ অন্তঃসত্বা অবস্থায় গৃহবধু শিরিনকে বৈদ্যুতিক শক লাগিয়ে হত্যার করা হয়। ৭ মার্চ এ ঘটনায় ফেনী মডেল থানায় গৃহবধুর মা রেজিয়া বেগম বাদী হয়ে তিন ব্যক্তিকে অভিযুক্ত করে হত্যা মামলা দায়ের করেন।

আদালতের ব্যাঞ্চ সহকারী মো. আলতাফ হোসেন জানান, রায় ঘোষণাকালে আসামি মো. এয়াছিন কাঠগড়ায় দাঁড়ানো ছিলো। তার বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগ সন্দেহাতীতভাবে প্রমাণিত হওয়ায় রায়ে আসামিকে মৃত্যুদণ্ড ও ৫০ হাজার টাকা অর্থদণ্ড দেওয়া হয়েছে।

আসামি পক্ষের আইনজীবী আবদুস ছাত্তার জানান, রায়ে আসামির ওপর ন্যায় বিচার প্রতিষ্ঠিত হয়নি। আমরা রায়ের কপি নিয়ে উচ্চ আদালতে আপিল করবো।

আদালতের পিপি হাফেজ আহাম্মদ জানান, আসামি নিজেই আদালতে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দিত স্ত্রীকে হত্যা করেছেন বলে স্বীকার করেছেন।



সাতদিনের সেরা