kalerkantho

শনিবার । ১২ অগ্রহায়ণ ১৪২৮। ২৭ নভেম্বর ২০২১। ২১ রবিউস সানি ১৪৪৩

স্ত্রীকে হত্যা করে থানায় এলেন স্বামী!

কেরানীগঞ্জ (ঢাকা) প্রতিনিধি   

১৯ নভেম্বর, ২০২১ ১৮:১৬ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



স্ত্রীকে হত্যা করে থানায় এলেন স্বামী!

ঢাকার দক্ষিণ কেরানীগঞ্জে স্ত্রী রিয়াকে (১৮) শ্বাসরোধে হত্যা করে নিজেই থানায় গিয়ে আত্মসমর্পণ করেছেন স্বামী রুবেল আহম্মেদ (২৬)। পরবর্তীতে পুলিশ রুবেলের দেখানো স্থান থেকে লাশ উদ্ধার করে। এ ঘটনায় রুবেলকে গ্রেপ্তার করেছে দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ থানা পুলিশ।

গ্রেপ্তারকৃত রুবেল কুমিল্লার জেলার মুরাদনগর থানার বিচাপিতলা গ্রামের দেলোয়ার হোসেনের ছেলে। তিননি পেশায় একজন নির্মাণ শ্রমিক।

বৃহস্পতিবার (১৮ নভেম্বর) রাত ৯টার দিকে দক্ষিণ কেরানীগঞ্জের কোন্ডা ইউনিয়নের উত্তর পানগাঁও কামাল হোসেনের বাড়ি থেকে লাশটি উদ্ধার করা হয়। রিয়া ও রুবেল দম্পতি ওই বাড়িতে ভাড়া থাকতেন।

জানা যায়, গত বছর লকডাউনে উত্তর পানগাঁও নিবাসী মোতালেব মিয়ার মেয়ে রিয়ার সঙ্গে রুবেলের বিয়ে হয়। বিয়ের কিছুদিন পর থেকেই তাদের মধ্যে বনিবনা হচ্ছিল না। বৃহস্পতিবার সকালে স্ত্রীকে নিয়ে রুবেল শ্বশুরবাড়ি বেড়াতে যায়। সেখান থেকে বিকেলে বাড়িতে ফিরে এসে স্ত্রীকে হত্যা করে নিজেই থানায় গিয়ে আত্মসমর্পণ করেন।

দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ থানা ইন্সপেক্টর (তদন্ত) খালেদুর রহমান বলেন, রাত ৮টার দিকে রুবেল থানায় এসে ডিউটি অফিসারকে জানায়, তিনি তার স্ত্রীকে গলাটিপে হত্যা করেছে। তাৎক্ষণিক আমরা তাকে আটক করি। পরে তার দেখানো স্থানে গিয়ে লাশটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য স্যার সলিমুল্লা মেডিক্যাল কলেজ মিটফোর্ড হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করি। এ ঘটনায় রুবেলকে আদালতে প্রেরণ করলে তিনি ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দিয়েছেন।



সাতদিনের সেরা