kalerkantho

বৃহস্পতিবার  । ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৮। ৯ ডিসেম্বর ২০২১। ৪ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৩

অনিবন্ধিত অটোরিকশার দাপট সড়কে, শহরজুড়ে জট

আমতলী (বরগুনা) প্রতিনিধি   

১৮ নভেম্বর, ২০২১ ২২:০১ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



অনিবন্ধিত অটোরিকশার দাপট সড়কে, শহরজুড়ে জট

বরগুনার আমতলী পৌর শহরে নিয়ন্ত্রণহীন ও নিবন্ধনহীন ব্যাটারিচালিত অটোরিকশার (ইজিবাইক) ছড়াছড়িতে এবং বিশৃঙ্খল অবস্থায় চলাচল করায় সড়ক জুড়ে যানজট লেগেই থাকে। এতে পৌরশহরে বসবাসরত মানুষরা অতিষ্ঠ হয়ে অবৈধ অটোরিকশা বন্ধের দাবি জানিয়েছে।

সরেজমিন আমতলী পৌর শহরের বিভিন্ন সড়ক ঘুরে দেখা গেছে, শহরের মধ্যে অতিরিক্ত ব্যাটারিচালিত অটোরিকশার ফলে মানুষের স্বাভাবিক চলাচল ব্যহত হচ্ছে। শহরের নতুন বাজার বাসস্ট্যান্ড, একে স্কুল চৌরাস্তা, বাঁধঘাট চৌরাস্তা, ফেরিঘাট, লঞ্চঘাট, বটতলা, তিন রাস্তার মোড়, মাছ ও সবজি বাজার, উপজেলা পরিষদ গেট এবং পুরান বাজার এলাকায় বেশিরভাগ সময় যানজট লেগে থাকে। ফলে সময়ের কাজ সময়ে করতে না পেরে ভোগান্তিতে পড়েন অনেকে।

আমতলী পৌরসভা সূত্রে জানা গেছে, ২০১৬-১৭ অর্থ বছরে আমতলী পৌরসভায় প্রথম ব্যাটারিচালিত অটোরিকশা চলাচল শুরু করলেও ২০১৭-১৮ অর্থবছরে অটোরিকশার নিবন্ধন শুরু করে পৌরকর্তৃপক্ষ। বর্তমানে পৌরসভার নিবন্ধিত অটোরিকশার (ইজিবাইক) সংখ্যা সহাস্রাধিক হলেও বাস্তবে এর সংখ্যা প্রায় দ্বিগুণেরও বেশি হবে।

অপরদিকে উপজেলার ৭টি ইউনিয়নের গ্রাম-গঞ্জে চলাচল করা অটোরিকশাগুলো দিনে আমতলী পৌর শহরে এসে চলাচল করে আবার রাতে গ্রামে ফিরে যায়। এতে পৌর শহরে যানজট বেশি হচ্ছে বলে ভুক্তভোগীরা জানায়। এ থেকে পরিত্রাণ পেতে দ্রুত অবৈধ অটোরিকশা বন্ধের দাবি তাদের।

আমতলী পৌরসভার ৪নম্বর ওয়ার্ড (পুরাতন বাজার এলাকার) বাসিন্দা ও বিশিষ্ট সমাজসেবক গাজী রফিকুল ইসলাম বলেন, আমতলী পৌর শহরে মানুষের চলাচলে যে পরিমাণ ব্যাটারিচালিত অটোরিকশা প্রয়োজন তার প্রায় দ্বিগুণেরও বেশি রিকশা শহরে চলাচল করছে। তাই শহর ঝুড়ে যানজট লেগেই থাকছে। এতে ভোগান্তিতে পড়ে পৌরবাসী।

আমতলী মফিজ উদ্দিন বালক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. নাসির মাহমুদ বলেন, পৌর শহর ও শহরের বাহিরে যতগুলো সড়ক দুর্ঘটনা ঘটে তার অধিকাংশ ব্যাটারিচালিত অটোরিকশার কারণেই ঘটে। কারণ অধিকাংশ অটোরিকশা চালক অদক্ষ, তারা বিশৃঙ্খল অবস্থায় রিকশা চলাচল করার কারণেই বেশি দুর্ঘটনা ঘটছে।

আমতলী পৌরসভার মেয়র ও উপজেলা আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক মো. মতিয়ার রহমান মুঠোফোনে বলেন, লাইসেন্স ছাড়াও অবৈধ অটোরিকশা শহরে চলাচল করছে। অবৈধ অটোরিকশা বন্ধ এবং শহরে যানজট লাগবে দ্রুত পদক্ষেপ নেওয়া হবে।

আমতলী ট্রাফিক পরিদর্শক আ. খালেক মুঠোফোনে বলেন, পৌর শহরে অবৈধ ব্যাটারিচালিত অটোরিকশার কোনো অভাব নেই। ফলে শহরে প্রতিনিয়ত যানজট বেড়েই চলছে।



সাতদিনের সেরা