kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ১৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৮। ২ ডিসেম্বর ২০২১। ২৬ রবিউস সানি ১৪৪৩

সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণে ওসির কাছে রিটার্নিং কর্মকর্তার অনুরোধ

বিশেষ প্রতিনিধি, কক্সবাজার   

১৩ নভেম্বর, ২০২১ ০০:৪৬ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণে ওসির কাছে রিটার্নিং কর্মকর্তার অনুরোধ

কক্সবাজারে চলমান ইউপি নির্বাচনে সহিংসতা ও খুনখারাবি এমন পর্যায়ে পৌঁছেছে যে, খোদ উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা নির্বাচন অবাধ ও সুষ্ঠু করার স্বার্থে সন্ত্রাসীদের গ্রেপ্তারের জন্য থানার ওসির কাছে লিখিত অনুরোধ জানিয়েছেন। তৃতীয় ধাপে আগামী ২৮ নভেম্বরের অনুষ্ঠেয় ইউপি নির্বাচন সামনে রেখে কক্সবাজারের পেকুয়া উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা বিভিন্ন মামলার পরোয়ানাভুক্ত আসামি এবং বহিরাগত সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য থানার ওসিকে লিখিতভাবে অনুরোধ জানান। 

পেকুয়া উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা রেজাউল করিম জানান, বৃহস্পতিবার (১১ নভেম্বর) মগনামা ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী নাজেম উদ্দিন লিখিতভাবে এ অনুরোধ জানিয়েছেন।

রিটার্নিং কর্মকর্তা রেজাউল করিম বলেন, গত দুটি ধাপের নির্বাচনে রাজনৈতিক প্রভাবে অস্ত্রবাজি করে খুনের মতো ঘটনাও ঘটেছে। চলতি ধাপের নির্বাচনেও এমন আশংকা অমূলক নয়। তাছাড়া মগনামা ইউনিয়ের সব কটি কেন্দ্রই ঝুঁকিপূর্ণ। তাই আগামী ২৮ নভেম্বর ৩য় ধাপের মগনামা ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনকে বানচাল ও প্রশ্নবিদ্ধ করতে এলাকায় অশান্ত পরিবেশ সৃষ্টি করতে বিভিন্ন মামলার ওয়ারেন্টভুক্ত আসামি ও বহিরাগত সন্ত্রাসী গ্রুপের সদস্যরা এলাকায় অবস্থান করছে বলে অভিযোগ করেন নৌকা প্রতীকের প্রার্থী নাজেম উদ্দিন। তাই এ ব্যাপারে আইনানুগ ব্যবস্থা নিতে পেকুয়া থানার ওসিকে লিখিতভাবে অনুরোধ জানানো হয়েছে।

মগনামা ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী নাজেম উদ্দিন বলেন, বর্তমান চেয়ারম্যান ওয়াসিম কোনোভাবে নির্বাচনের আচরণবিধি মানছে না। তিনি কালো টাকা নিয়ে ভোটে জেতার মিশনে নেমেছেন। বহিরাগত সন্ত্রাসী এনে এলাকায় ত্রাসের রাজত্ব কায়েম করেছেন। এতে আমরা নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছি। এ ব্যাপারে প্রশাসন দ্রুত ব্যবস্থা না নিলে যেকোনো সময় অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটে যাবে। রক্তপাত হবে।

স্বতন্ত্র প্রার্থী শহিদুল মোস্তাফা বলেন, দুর্ধর্ষ সন্ত্রাসী জিয়াবুল, কানা মানিক ও মিজানুর রহমানের নেতৃত্বে বর্তমান চেয়ারম্যান শরাফত উল্লাহ ওয়াসিমের টাইগার বাহিনী পুরো মগনামায় ত্রাসের রাজত্ব কায়েম করে রেখেছে। তাদের ভয়ে আমার কর্মী-সমর্থক ঘরে থাকতে পারছে না। পালিয়ে বেড়াতে হচ্ছে। আমি নির্বাচনী প্রচারণায় অংশগ্রহণে বাধাগ্রস্ত হচ্ছি। ইতিমধ্যে চেয়ারম্যান ওয়াসিম আমাকে ষড়যন্ত্রমূলক একটি মামলায় ফাঁসিয়েছে।

এ ব্যাপারে পেকুয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শেখ মোহাম্মদ আলী বলেন, চিঠিটি আমি এখনো পাইনি। তবে, শুধু মগনামা নয়, পুরো পেকুয়া উপজেলায় পরোয়ানাভুক্ত আসামি ও বহিরাগত সন্ত্রাসীদের ধরতে পুলিশের সদিচ্ছা আছে। নির্বাচনকে প্রভাবমুক্ত রাখতে অভিযান চালিয়ে অপরাধীদের ধরা হবে।



সাতদিনের সেরা