kalerkantho

বুধবার । ১৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৮। ১ ডিসেম্বর ২০২১। ২৫ রবিউস সানি ১৪৪৩

চট্টগ্রামে সম্প্রীতির সমাবেশ

সাম্প্রদায়িক হামলায় জড়িত ও উসকানিদাতাদের শাস্তি দিতে হবে

নিজস্ব প্রতিবেদক, চট্টগ্রাম   

২৮ অক্টোবর, ২০২১ ২০:৪৯ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



সাম্প্রদায়িক হামলায় জড়িত ও উসকানিদাতাদের শাস্তি দিতে হবে

সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিনষ্টকারীদের গ্রেপ্তার করে দ্রুত বিচার ট্রাইবুনালের মাধ্যমে বিচার করতে হবে। ক্ষতিগ্রস্ত মঠ-মন্দির রাষ্ট্রীয় অর্থায়নে পুননির্মাণ এবং সংখ্যালঘু সুরক্ষা আইন মহান জাতীয় সংসদের মাধ্যমে বাস্তবায়ন করা হোক। এ ছাড়া সাম্প্রদায়িক হামলার ঘটনায় জড়িত ও উসকানিদাতাদের সর্বোচ্চ শাস্তি দিতে হবে।

বৃহস্পতিবার দুপুরে নগরের নন্দনকানন চত্বরে আন্তর্জাতিক কৃষ্ণভাবনামৃত সংঘ (ইসকন), চট্টগ্রাম বিভাগীয় কমিটি আয়োজিত সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি পুনরুদ্ধার সমাবেশে বক্তারা সরকারের কাছে এসব দাবি জানান।

সমাবেশে হাজার-হাজার মানুষের সমাগম হয়। ভিড়ের কারণে নন্দনকানন, এনায়েত বাজার, বোস ব্রাদার্স, মোমিন সড়ক, লাভলেনসহ বিভিন্ন সড়কে যানচলাচল বন্ধ হয়ে যায়। নগর ও জেলার বিভিন্ন এলাকা থেকে বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষ সম্প্রীতির এ সমাবেশে যোগ দিতে সকাল থেকে ভিড় জমান।

বক্তারা আরো বলেন, হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বপ্ন ছিল সকল ধর্মের সকল জাতি সত্ত্বার সমন্বয়ে একটি অসাম্প্রদায়িক চেতনা সমৃদ্ধ সুখী বাংলাদেশ। এজন্য তিনি তাঁর সমগ্র জীবন উৎসর্গ করেছেন দেশের জন্য। বঙ্গবন্ধু তনয়া জননেত্রী শেখ হাসিনার প্রতি আমাদের বিশ্বাস ও আস্থা এখনো অটুট। আমরা আশা রাখি সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিনষ্টকারীদের গ্রেপ্তার করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দিবে সরকার।

সমাবেশে সংহতি প্রকাশ করে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা ও প্রিমিয়ার বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ড. অনুপম সেন, আওয়ামী লীগ চট্টগ্রাম মহানগরের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মাহতাব উদ্দিন চৌধুরী ও সাধারণ সম্পাদক সাবেক চসিক মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন, বাংলাদেশ হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদের সাধারণ সম্পাদক এড. রানা দাশগুপ্ত, চট্টগ্রাম উত্তর জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান এম এ সালাম এবং যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও রাউজানের সাবেক পৌর মেয়র দেবাশীষ পালিত, চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মোছলেম উদ্দিন আহম্মদ এমপি ও সাধারণ সম্পাদক মফিজুর রহমান, মহানগর বিএনপির সভাপতি ডা. শাহাদাত হোসেন, ইসকন কো রিজিওনাল সেক্রেটারি শ্রীপাদ রাধা গোবিন্দ দাস ব্রহ্মচারী, বাংলাদেশ গীতা শিক্ষা কমিটির প্রধান উপদেষ্টা অ্যাড. তপন কান্তি দাশ, বাংলাদেশ জন্মাষ্টমী উদযাপন পরিষদের সাধারণ সম্পাদক প্রকৌশলী  প্রবীর কুমার সেন প্রমুখ।



সাতদিনের সেরা