kalerkantho

সোমবার । ১৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৮। ২৯ নভেম্বর ২০২১। ২৩ রবিউস সানি ১৪৪৩

আরো ১০ জনের দুই দিনের রিমান্ড

পীরগঞ্জে সহিংসতা : সৈকত মণ্ডলকে গ্রেপ্তার দেখানোর নির্দেশ

পীরগাছা (রংপুর) প্রতিনিধি   

২৮ অক্টোবর, ২০২১ ১৭:৫১ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



পীরগঞ্জে সহিংসতা : সৈকত মণ্ডলকে গ্রেপ্তার দেখানোর নির্দেশ

রংপুরের পীরগঞ্জ উপজেলার মাঝিপাড়ায় সনাতন ধর্মাবলম্বীদের বাড়িঘরে হামলা, ভাঙচুর ও আগুন দেওয়ার মামলায় নতুন করে আরো ১০ জনের দুই দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত। সেই সঙ্গে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মামলায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেওয়া বহিষ্কৃত ছাত্রলীগ নেতা সৈকত মণ্ডলকে হামলা, ভাঙচুর ও অগ্নিসংযোগের মামলায় গ্রেপ্তার দেখানোর নির্দেশ দিয়েছেন বিচারক।

আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে রংপুর সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের হাকিম ফজলে এলাহী এ আদেশ দেন।

বিষয়টি নিশ্চিত করে পীরগঞ্জ আমলি আদালতের সাধারণ নিবন্ধক (জিআরও) শহিদুর রহমান বলেন, আদালতে নতুন ১০ আসামির দুই দিনের রিমান্ড মঞ্জুর হয়েছে। এর আগে ৫০ জন আসামিকে তিন দিনের রিমান্ডে নেওয়া হয়। রিমান্ডে থাকা ১৩ জনের মধ্যে রাশেদুল ইসলাম নামের এক যুবক নতুন করে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন। বাকি ১২ জনকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। এ ছাড়া র‌্যাবের করা মামলায় বহিষ্কৃত ছাত্রলীগ নেতা সৈকত মণ্ডলকে হামলা, ভাঙচুর ও অগ্নিসংযোগের মামলায় গ্রেপ্তার দেখানোর নির্দেশ দিয়েছেন বিচারক।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ও পীরগঞ্জ থানার উপপরিদর্শক মাহবুবুর রহমান বলেন, বাড়িঘরে হামলা, ভাঙচুর ও অগ্নিসংযোগের মামলায় নতুন ১০ আসামির সাত দিনের রিমান্ড আবেদন করা হয়। এদের মধ্যে গতকাল বুধবার গ্রেপ্তার হওয়া নজরুল ইসলাম, মঙ্গলবার গ্রেপ্তার হওয়া শফিকুর রহমান, আশিকুর রহমান ও পলাশ হোসেন এবং সোমবার গ্রেপ্তার হওয়া শিবিরকর্মী আব্দুল্লাহ আল মামুন ও ওমর ফারুক টনেক রয়েছেন। আদালত শুনানি শেষে দুই দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন। তাদের কাছে অনেক গুরুত্বপূর্ণ তথ্য থাকতে পারে, সে কারণে রিমান্ডে নেওয়া হয়েছে।

পীরগঞ্জ থানার ওসি সরেস চন্দ্র বলেন, পীরগঞ্জের ঘটনায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে তিনটি ও বাড়িঘরে হামলা, ভাঙচুর ও অগ্নিসংযোগের ঘটনায় একটি মামলাটি করা হয়। এসব মামলায় এখন পর্যন্ত ৭০ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। এর মধ্যে
ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মামলায় পরিতোষ সরকার ও বহিষ্কৃত ছাত্রলীগ নেতা সৈকত মণ্ডলসহ চার জন এবং হামলা, ভাঙচুর ও অগ্নিসংযোগের মামলায় দুইজন স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন।



সাতদিনের সেরা