kalerkantho

শনিবার । ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৮। ৪ ডিসেম্বর ২০২১। ২৮ রবিউস সানি ১৪৪৩

টিকটকে 'মডেল' তৈরির নামে মুক্তিপণ, তরুণী গ্রেপ্তার

কেরানীগঞ্জ (ঢাকা) প্রতিনিধি   

২৭ অক্টোবর, ২০২১ ১৭:৫৫ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



টিকটকে 'মডেল' তৈরির নামে মুক্তিপণ, তরুণী গ্রেপ্তার

গ্রেপ্তার নূরিতা ওরফে সুরাইয়া।

টিকটক ও শর্ট ফিল্মের মডেল বানানোর নামে তরুণীদের ডেকে এনে নির্যাতন ও মুক্তিপণ আদায় করার অভিযোগে নূরিতা ওরফে সুরাইয়া (২৩) নামে এক তরুণীকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার সন্ধ্যায়  দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ থানা পুলিশ তাকে গ্রেপ্তার করে।

নূরিতা বগুড়া জেলার ধুনট থানার রাঙ্গামাটি গ্রামের আলমগীরের ফকিরের মেয়ে। তিনি একটি চক্রের সঙ্গে জড়িত বলে জানিয়েছে পুলিশ।

বুধবার (২৭ অক্টোবর) সকাল ১১টায় দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ থানায় সহকারী পুলিশ সুপার কেরানীগঞ্জ সার্কেল শাহাবুদ্দিন কবির এক সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান।

শাহাবুদ্দিন কবির জানান, গ্রেপ্তারকৃত আসামি নূরিতা মোবাইল ফোনের মাধ্যমে শর্ট ফিল্মে অভিনয় করার কথা বলে ভিকটিমকে ডেকে এনে একটি ঘরে আটকে রাখে। তার সহযোগী মারুফসহ আরো কয়েকজনকে নিয়ে হাত-পা বেঁধে নির্যাতন করে মুক্তিপণ দাবি করে। ভুক্তভোগী তরুণী পরিবার থেকে ৮ হাজার টাকা বিকাশে এবং নিজের সঙ্গে থাকা স্বর্ণালঙ্কার দিয়ে দেয়। পরে রাতে হাসনাবাদ এলাকার একটি নির্জনস্থানে তাকে ফেলে যায়। সেখান থেকে বাসায় ফিরে পরদিন সকালে থানায় অভিযোগ করেন ভুক্তভোগী।

অভিযোগ আমলে নিয়ে দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ থানার ইন্সপেক্টর (তদস্ত) খালেদুর রহমান তদন্ত শুরু করে। এক পর্যায়ে গতকাল (মঙ্গলবার) সন্ধ্যায় দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ থানাধীন হাসনাবাদ মোকামপাডা নান্নু মিয়ার বাড়ির দ্বিতীয় তলায় অভিযান পরিচালনা করে এই চক্রের মূল হোতা নূরিতাকে গ্রেপ্তার করা হয়। এ সময় পুলিশের অভিযান টের পেয়ে তার সহযোগী মারুফসহ অন্যান্যরা কৌশলে পালিয়ে যায়। পলাতক আসামিদের গ্রেপ্তারে পুলিশের তৎপরতা অব্যাহত রয়েছে।

অভিযানকালে আসামি নূরিতার কাছ থেকে আরো একটি মেয়েকে উদ্ধার করা হয়েছে।



সাতদিনের সেরা