kalerkantho

শনিবার । ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৮। ৪ ডিসেম্বর ২০২১। ২৮ রবিউস সানি ১৪৪৩

ব্যবসায়ীর গুদামে ১১ টন সরকারি চাল!

আদমদীঘি (বগুড়া) প্রতিনিধি   

২৭ অক্টোবর, ২০২১ ১৬:৫০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ব্যবসায়ীর গুদামে ১১ টন সরকারি চাল!

বগুড়ার আদমদীঘি উপজেলায় এক ব্যবসায়ীর গুদাম থেকে খাদ্যবান্ধব কর্মসূচির ১০ টাকা কেজির প্রায় পৌনে ১১ টন চাল জব্দ করা হয়েছে। গুদামমালিক হলেন উপজেলার নশরতপুর ইউনিয়নের পূর্ব ডালম্বা গ্রামের একরাম আলীর ছেলে ব্যবসায়ী আল মামুন (৪৫)।

আজ বুধবার বিকেল এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছিল। এর আগে মঙ্গলবার রাত ৯টার দিকে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) শ্রাবনী রায় চালগুলো জব্দ ও উদ্ধার করেন।

জানা গেছে, দীর্ঘদিন যাবৎ উপজেলার নশরতপুর বাজার এলাকায় ইসমাইল হোসেনের চালকলের গুদাম ভাড়া নিয়ে ব্যবসায়ী আল মামুন চালের ব্যবসা করে আসছিলেন। তার বৈধ ব্যবসার পাশাপাশি সরকারি খাদ্যবান্ধব কর্মসূচির আওতায় ১০ টাকা কেজির চালগুলোও কিনে গুদামজাত করতেন। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে মঙ্গলবার রাত ৯টার দিকে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) শ্রাবনী রায় ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে গুদামে অভিযান পরিচালনা করেন। এ সময় গুদামের ভিতর মজুদ করা খাদ্য অধিদপ্তরের ছাপানো ২১৪টি চটের বস্তায় থাকা ১০ হাজার ৭০০ কেজি চাল জব্দ করা হয়।

নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) শ্রাবনী রায় জানান, অবৈধভাবে চাল মজুদকারীর বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য মামলা করতে উপজেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক কর্মকর্তাকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

উপজেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক কর্মকর্তা কে এম গোলাম রাব্বানী বলেন, জব্দ করা চালগুলো পুলিশ হেফাজতে রাখা হয়েছে। অভিযুক্ত ও জড়িতের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হবে।



সাতদিনের সেরা